প্রকাশকাল: 30 জুলাই, 2015

ধেঁয়ে আসছে কোমেন : নিরাপদ আশ্রয়ে মাছ ধরা ট্রলার

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি : ধেঁয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় কোমেন, নিরাপদ আশ্রয়ে ফিরেছে বরগুনার মাছ ধরা ট্রলার। কোমেনের প্রভাবে বঙ্গোপসাগর উত্তাল হওয়ায় বরগুনায় নিরাপদ আশ্রয়ে ফিরছে শত শত মাছ ধরা ট্রলার। তবে এখনো অনেক ট্রলার বঙ্গোপসাগর সংলগ্ন সুন্দরবনের আশপাশে অবস্থান করে রয়েছে বলে জানিয়েছেন বরগুনা জেলা মৎস্যজীবী সমিতির সভাপতি মো. খালেক দফাদার।তিনি আরো বলেন, আমরা যতদূর সম্ভব জেলেদের সতর্ক করেছি। আশা করছি তারা সবাই নিরাপদ আশ্রয়ে থাকবে।এছাড়াও ঘূর্ণিঝড় কোমেনের প্রভাবে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার সমুদ্রবন্দরকে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।উপকূলীয় জেলা কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, ল্মীপুর, ফেনী, চাঁদপুর, ভোলা এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরগুলো ৭ নম্বর বিপদ সংকেতের আওতায় থাকবে।এছাড়া মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৫ (পাঁচ) নম্বর বিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।উপকূলীয় জেলা বরগুনা, পটুয়াখালী, বরিশাল, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বাগেরহাট, খুলনা, সাতীরা এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরগুলো ৫ নম্বর বিপদ সংকেতের আওতায় থাকবে।উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারগুলোকে অবিলম্বে নিরাপদ আশ্রয়ে যেতে বলা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।

সব ধরনের নৌযান চলাচল নিষিদ্ধ

বরগুনার আমতলীসহ বরগুনার নদীপথে ছোট, মাঝারি ও বড় সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে অভ্যন্তরীণ নৌ কর্তৃপ।আবহাওয়া প্রতিকূল হওয়ায় নদীবন্দরে ৫ ও ৭ নম্বর বিপদ সংকেত থাকায় বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ কর্তৃপ বরগুনা থেকে এ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।বরগুনা নৌ পরিবহন কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে ৫ ও ৭ নম্বর বিপদ সংকেত থাকায় বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বরগুনায় সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এ নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে বলেও তিনি জানান।

আমতলীতে দুর্যোগ মোকাবেলায় সভা

আমতলী উপজেলা নিবার্হী অফিসার মো. মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে বুধবার (২৯ জুলাই) রাত ৯ টায় উপজেলার সব সরকারি, বেসরকারি, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের নেতাদের উপস্থিতে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।এ সময় সব বিভাগকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে দুর্যোগ মোকাবেলায় প্রস্তুত থেকে মানুষের মধ্যে দুর্যোগের সংকেত পৌঁছে দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়। এছাড়াও রেড ক্রিসেন্ট ও সিপিপি সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবকদের প্রস্তুত রাখা হয়।

আপনার মতামত দিন

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

error: Content is protected !!