[bangla_time] | [bangla_day] | [english_date] | [bangla_date]

দিল্লিতে ঐতিহাসিক জয় টাইগারদের

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : দিল্লির অক্সিজেনে বিষ ঢুকে গেছে! গলার কাছে নিশ্বাস আটকে যায়। তবে ভারতের বিপক্ষে সাকিব-তামিম না থাকলেও টাইগাদের বিশ্বাস আটকায়নি। টস জিতে প্রথমে বোলিংয়ে নেমে বাংলাদেশের বোলাররা ভারতের ব্যাটসম্যানদের নিশ্বাস চেপে ধরে। পরে ব্যাটে নেমে মুশফিক-সৌম্যর দারুণ ব্যাটিংয়ে তিন বল থাকতে ৭ উইকেটের বড় জয় তুলে নেয় টাইগাররা। অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহর ছক্কায় শেষ হাসি হাসে বাংলাদেশ। সাকিব-তামিম ছাড়াই দিল্লি জয় করে টাইগাররা। টি-২০ ক্রিকেটে ভারতের বিপক্ষে তুলে নেয় প্রথম জয়।
প্রায় সাড়ে তিন বছর আগে ব্যাঙ্গালুরুয় টি-২০ বিশ্বকাপের সেই ম্যাচের সঙ্গে এই ম্যাচের অনেক মিল। সেবার বাংলাদেশ হেরেছিল মাত্র এক রানে। মুশফিক-মাহমুদুল্লাহ জয়ের প্রান্তে গিয়েও ম্যাচ বের করতে পারেননি। এবার তাদের হাত ধরেই ভারতের মাটিতে টাইগাররা তুলে নিল প্রথম জয়। সেবার ভারত শুরুতে ব্যাট করে তুলেছিল ১৪৬ রান। এবার তাদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৪৮।
দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলায় প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শেখর ধাওয়ানের ৪২ বলে ৪১ রান এবং শ্রেয়াসের আয়ারের ২২ ও ঋষভ পান্তের ২৭ রানে ভর করে দেড়শ’ ছোঁয়া লক্ষ্য দেয় ভারত। লক্ষ্যটা আরও ছোট পেতে পারত বাংলাদেশ। তবে শেষ দিকে ওয়াশিংটন সুন্দর এবং ক্রুনাল পান্ডিয়া গুরুত্বপূর্ণ ২৮ রান যোগ করেন। সুন্দর করেন ১৪, ক্রুনাল খেলেন ১৫ রানের ইনিংস।
লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতে ধাক্কা খায় বাংলাদেশ। সাকিব-তামিম না থাকায় টপ অর্ডারে টাইগারদের বড় ভরসা ছিলেন লিটন দাস। প্রথম ওভারেই তিনি ফিরে যান। সেখান থেকে ২০ বছরের তরুণ নাঈম শেখ ও সৌম্য সরকার ৪৬ রান যোগ করেন। অভিষেক ম্যাচে ওপেনার নাঈম ২৬ রান করে আউট হন। এরপর সৌম্য এবং মুশফিক ৬০ রানের দারুণ এক জুটি গড়েন। সৌম্য ফিরে যান ৩৯ রান করে। তখনও ম্যাচ দুলছে।
শেষ তিন ওভারে ৩৫ রান দরকার ছিল বাংলাদেশ। ১৭তম ওভারের শেষ বলে সেট ব্যাটসম্যান সৌম্য আউট হয়েছেন। কিন্তু সাহসে ঘা লাগেনি টাইগারদের। মাহমুদুল্লাহ এবং মুশফিক দারুণভাবে পাড়ি দেন বাকিটা পথ। মুশফিক খেলেন ৪৩ বলে ৬০ রানের দারুণ ইনিংস। আটটি চার এবং একটি ছক্কা মারেন। বাংলাদেশ ১৮তম ওভারে ১৩ এবং ১৯তম ওভারে ১৮ রান নিয়ে ভারতের হাত থেকে ম্যাচ বের করে নেয়। দলের হয়ে শেষ দিকে ৭ বলে ১৫ রান করেন মাহমুদুল্লাহ।
বাংলাদেশের হয়ে দুই তরুণ স্পিনার আমিনুল ইসলাম এবং আফিফ হোসেন দারুণ বোলিং করেন। আমিনুল ৩ ওভারে ২২ রান দিয়ে নেন ২ উইকেট। আফিফ ৩ ওভারে দেন মাত্র ১১ রান। নেন ১ উইকেট। এছাড়া শফিউল ইসলাম ৪ ওভারে ৩৬ রান দিয়ে ২ উইকেট দখল করেন। আল আমিন ৪ ওভারে ২৭ রান দিয়ে উইকেট শূন্য থাকেন। প্রথম তিন ওভারে তিনি মাত্র ১১ রান দেন। তবে নিজের এবং ইনিংসের শেষ ওভারে দিয়ে বসেন ১৬ রান এই পেসার।

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» মায়াঙ্ক-রাহানেতে লিড নিয়েছে ভারত

» শেরপুরে ৪ দিনব্যাপী আয়কর মেলার উদ্বোধন

» শেরপুরে নবাগত সিভিল সার্জনকে বিএমএ’র সংবর্ধনা

» বোমা হামলায় নিহত ২ বিচারকের মৃত্যুবার্ষিকীতে শেরপুরে স্মরণসভা অনুষ্ঠিত

» নিরাপদ খাদ্যাভ্যাস ও সুশৃংখল জীবন যাপনেই ডায়াবেটিস থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব : বিভাগীয় কমিশনার

» শেরপুরে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালিত

» কৃষি উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখায় আজীবন সম্মাননা পেলেন সাবেক কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী

» ‘সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, ইভটিজিং ও মাদকমুক্ত দেশ বিনির্মাণে অক্লান্ত পরিশ্রম করছেন প্রধানমন্ত্রী’

» উল্লাপাড়ায় রংপুর এক্সপ্রেস লাইনচ্যুত : বগিতে আগুন

» জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় জামিন চেয়ে খালেদার আপিল

» প্রথম ইনিংসে ১৫০ রানে অলআউট বাংলাদেশ

» প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা শুরু ১৭ নভেম্বর

» সুন্দরবনের এক জোছনা রাতের গল্প ॥ মুগনিউর রহমান মনি

» শেরপুরে সেরা করদাতার পুরস্কার পেলেন ইলিয়াস, সাদী ও নাইম

» শ্রীবরদীতে নবাগত ইউএনওর মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

কারিগরি সহযোগিতায় BD iT Zone

,

দিল্লিতে ঐতিহাসিক জয় টাইগারদের

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : দিল্লির অক্সিজেনে বিষ ঢুকে গেছে! গলার কাছে নিশ্বাস আটকে যায়। তবে ভারতের বিপক্ষে সাকিব-তামিম না থাকলেও টাইগাদের বিশ্বাস আটকায়নি। টস জিতে প্রথমে বোলিংয়ে নেমে বাংলাদেশের বোলাররা ভারতের ব্যাটসম্যানদের নিশ্বাস চেপে ধরে। পরে ব্যাটে নেমে মুশফিক-সৌম্যর দারুণ ব্যাটিংয়ে তিন বল থাকতে ৭ উইকেটের বড় জয় তুলে নেয় টাইগাররা। অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহর ছক্কায় শেষ হাসি হাসে বাংলাদেশ। সাকিব-তামিম ছাড়াই দিল্লি জয় করে টাইগাররা। টি-২০ ক্রিকেটে ভারতের বিপক্ষে তুলে নেয় প্রথম জয়।
প্রায় সাড়ে তিন বছর আগে ব্যাঙ্গালুরুয় টি-২০ বিশ্বকাপের সেই ম্যাচের সঙ্গে এই ম্যাচের অনেক মিল। সেবার বাংলাদেশ হেরেছিল মাত্র এক রানে। মুশফিক-মাহমুদুল্লাহ জয়ের প্রান্তে গিয়েও ম্যাচ বের করতে পারেননি। এবার তাদের হাত ধরেই ভারতের মাটিতে টাইগাররা তুলে নিল প্রথম জয়। সেবার ভারত শুরুতে ব্যাট করে তুলেছিল ১৪৬ রান। এবার তাদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৪৮।
দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলায় প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শেখর ধাওয়ানের ৪২ বলে ৪১ রান এবং শ্রেয়াসের আয়ারের ২২ ও ঋষভ পান্তের ২৭ রানে ভর করে দেড়শ’ ছোঁয়া লক্ষ্য দেয় ভারত। লক্ষ্যটা আরও ছোট পেতে পারত বাংলাদেশ। তবে শেষ দিকে ওয়াশিংটন সুন্দর এবং ক্রুনাল পান্ডিয়া গুরুত্বপূর্ণ ২৮ রান যোগ করেন। সুন্দর করেন ১৪, ক্রুনাল খেলেন ১৫ রানের ইনিংস।
লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতে ধাক্কা খায় বাংলাদেশ। সাকিব-তামিম না থাকায় টপ অর্ডারে টাইগারদের বড় ভরসা ছিলেন লিটন দাস। প্রথম ওভারেই তিনি ফিরে যান। সেখান থেকে ২০ বছরের তরুণ নাঈম শেখ ও সৌম্য সরকার ৪৬ রান যোগ করেন। অভিষেক ম্যাচে ওপেনার নাঈম ২৬ রান করে আউট হন। এরপর সৌম্য এবং মুশফিক ৬০ রানের দারুণ এক জুটি গড়েন। সৌম্য ফিরে যান ৩৯ রান করে। তখনও ম্যাচ দুলছে।
শেষ তিন ওভারে ৩৫ রান দরকার ছিল বাংলাদেশ। ১৭তম ওভারের শেষ বলে সেট ব্যাটসম্যান সৌম্য আউট হয়েছেন। কিন্তু সাহসে ঘা লাগেনি টাইগারদের। মাহমুদুল্লাহ এবং মুশফিক দারুণভাবে পাড়ি দেন বাকিটা পথ। মুশফিক খেলেন ৪৩ বলে ৬০ রানের দারুণ ইনিংস। আটটি চার এবং একটি ছক্কা মারেন। বাংলাদেশ ১৮তম ওভারে ১৩ এবং ১৯তম ওভারে ১৮ রান নিয়ে ভারতের হাত থেকে ম্যাচ বের করে নেয়। দলের হয়ে শেষ দিকে ৭ বলে ১৫ রান করেন মাহমুদুল্লাহ।
বাংলাদেশের হয়ে দুই তরুণ স্পিনার আমিনুল ইসলাম এবং আফিফ হোসেন দারুণ বোলিং করেন। আমিনুল ৩ ওভারে ২২ রান দিয়ে নেন ২ উইকেট। আফিফ ৩ ওভারে দেন মাত্র ১১ রান। নেন ১ উইকেট। এছাড়া শফিউল ইসলাম ৪ ওভারে ৩৬ রান দিয়ে ২ উইকেট দখল করেন। আল আমিন ৪ ওভারে ২৭ রান দিয়ে উইকেট শূন্য থাকেন। প্রথম তিন ওভারে তিনি মাত্র ১১ রান দেন। তবে নিজের এবং ইনিংসের শেষ ওভারে দিয়ে বসেন ১৬ রান এই পেসার।

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

কারিগরি সহযোগিতায় BD iT Zone

error: Content is protected !!