রাত ৯:৫৫ | সোমবার | ৯ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং | ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ত্রৈমাসিক বিচার বিভাগীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : ঢাকা জেলা জজ আদালতে মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা ও উত্তরনের উপায় বিষয়ে ত্রৈমাসিক জুডিসিয়াল করফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২৩ নভেম্বর শনিবার ঢাকা জেলার জেলা ও দায়রা জজ মোঃ হেলাল চৌধুরী এর সভাপতিত্বে জেলা জজের কনফারেন্স রুমে আয়োজিত ওই কর্মশালায় ঢাকা জেলার জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট, ঢাকা জেলার পুলিশ সুপারসহ বিচার ব্যবস্থার সাথে জড়িত ডিসি প্রসিকিউশন, র‌্যাব কর্মকর্তা, কারা কর্তৃপক্ষ, বিজ্ঞ আইনজীবী নেতৃবৃন্দ, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর এর কর্মকর্তা, চিকিৎসকসহ আরও অনেক এজেন্সির কর্মকর্তা মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা ও উত্তরনের উপায় বিষয়ে অত্যন্ত ফলপ্রসু আলোচনা করেন।
কনফারেন্সে সভাপতি ও ঢাকা জেলার জেলা ও দায়রা জজ, মোঃ হেলাল চৌধুরী বলেন যে, বিচার ব্যবস্থার সাথে জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ, কারা কর্তৃপক্ষ, আইনজীবী, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর চিকিৎসকসহ আরো অনেক এজেন্সি ওতপ্রোতভাবে জড়িত। সঠিক প্রসিকিউশন, যথার্থ তদন্ত ও বিচার প্রক্রিয়ায় সাক্ষ্য-প্রমান উপস্থাপনের মত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের কোনো একটিকে ক্রটি থাকলে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠিত হয় না। দেওয়ানী মামলার প্রতিকার বহুলাংশে বিজ্ঞ আইনজীবীগনের সঠিক ও নির্ভুল প্লিডিংস, যথাসময়ে দলিলাদি প্রদর্শন ও আন্তরিকতার সাথে জড়িত। মামলার মাধ্যমে আদালতকে ব্যবহার করে হয়রানী ও জুলুম করার মানসিকতা থেকে দুবৃত্তদের ফেরাতে বিচারক, প্রসিকিউশন, বিজ্ঞ আইনজীবীদের সাহসী, নির্লোভ ও সদা তৎপর থাকতে হবে।
জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও ঢাকার জেলা প্রশাসক আবু ছালেহ মোহাম্মদ ফেরদৌস খান বলেন যে ,ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার প্রতিবন্ধকতা দূরীকরণে তার অফিস ও সহকর্মীরা সদা তৎপর ও পূর্ণ সহযোগিতার মনোভাব পোষণ করেন।
ঢাকা জেলার পুলিশ সুপার মারুফ আহমেদ, নিয়মিত এ জাতীয় কনফারেন্স অনুষ্ঠানের আহ্বান জানিয়ে বলেন যে, অদ্যকার এ সম্মেলনে আলোচিত মাদক মামলার তদন্ত সংক্রান্ত ও তদন্ত কর্মকর্তা সাক্ষীর হাজিরাসহ মামলা দ্রুত নিষ্পত্তিতে আলোচিত সুপারিশমালা পরবর্তী সম্মেলনের আগেই সমাধান করবেন।
ঢাকা জেলায় কর্মরত বিচারকদের মতামতের ভিত্তিতে প্রস্তুতকৃত মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা ও উত্তরনের উপায় বিষয়ে গবেষণালব্ধ একটি প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন ঢাকা জেলার লিগ্যাল এইড অফিসার ও সিনিয়র সহকারী জজ মোঃ আলমগীর হোসাইন। তার উপস্থাপনমতে ঢাকা জেলা জজ আদালতে ২০১৯ সালে দেওয়ানী মামলার নিষ্পত্তির হার ১০৬ ভাগের উপরে। বিচার বিভাগীয় ওই সম্মেলন উপস্থাপনা করেন সিনিয়র সহকারী জজ আফরিন আহমেদ হ্যাপী।

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» শ্রীবরদী সিআইজি মৎস্যচাষীদের মাঝে জাল বিতরণ

» নকলায় আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস পালিত

» ঝিনাইগাতীতে বেগম রোকেয়া দিবস পালিত

» শেরপুরে বেগম রোকেয়ার ১৩১তম জন্মদিন উপলক্ষে মহিলা পরিষদের আলোচনা সভা

» শেরপুরে বসুন্ধরা সিমেন্টের রিটেইলার সম্মেলন অনুষ্ঠিত

» আন্তর্জাতিক ক্রীড়াঙ্গনে ৪ বছর নিষিদ্ধ রাশিয়া

» শ্রীলংকাকে হারিয়ে স্বর্ণ জিতল বাংলাদেশ

» ‘সম্মেলনের আগে মন্ত্রিসভায় পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই’

» শুধু আইন করে নারী নির্যাতন বন্ধ হবে না : প্রধানমন্ত্রী

» শ্রীবরদীতে পুলিশের বিশেষ শান্তি সমাবেশ অনুষ্ঠিত

» শ্রীবরদীতে আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস পালিত

» শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ে আসে জ্ঞানার্জনে, লাশ হতে নয়: রাষ্ট্রপতি

» শেরপুরে পদ্মা ব্যাংকের অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগে ঋণগ্রহীতাদের মানববন্ধন

» শেরপুরে বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের বিক্ষোভ সমাবেশ

» শেরপুরে দুর্নীতিবিরোধী দিবসে র‌্যালি, মানববন্ধন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  রাত ৯:৫৫ | সোমবার | ৯ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং | ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ত্রৈমাসিক বিচার বিভাগীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : ঢাকা জেলা জজ আদালতে মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা ও উত্তরনের উপায় বিষয়ে ত্রৈমাসিক জুডিসিয়াল করফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২৩ নভেম্বর শনিবার ঢাকা জেলার জেলা ও দায়রা জজ মোঃ হেলাল চৌধুরী এর সভাপতিত্বে জেলা জজের কনফারেন্স রুমে আয়োজিত ওই কর্মশালায় ঢাকা জেলার জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট, ঢাকা জেলার পুলিশ সুপারসহ বিচার ব্যবস্থার সাথে জড়িত ডিসি প্রসিকিউশন, র‌্যাব কর্মকর্তা, কারা কর্তৃপক্ষ, বিজ্ঞ আইনজীবী নেতৃবৃন্দ, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর এর কর্মকর্তা, চিকিৎসকসহ আরও অনেক এজেন্সির কর্মকর্তা মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা ও উত্তরনের উপায় বিষয়ে অত্যন্ত ফলপ্রসু আলোচনা করেন।
কনফারেন্সে সভাপতি ও ঢাকা জেলার জেলা ও দায়রা জজ, মোঃ হেলাল চৌধুরী বলেন যে, বিচার ব্যবস্থার সাথে জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ, কারা কর্তৃপক্ষ, আইনজীবী, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর চিকিৎসকসহ আরো অনেক এজেন্সি ওতপ্রোতভাবে জড়িত। সঠিক প্রসিকিউশন, যথার্থ তদন্ত ও বিচার প্রক্রিয়ায় সাক্ষ্য-প্রমান উপস্থাপনের মত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের কোনো একটিকে ক্রটি থাকলে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠিত হয় না। দেওয়ানী মামলার প্রতিকার বহুলাংশে বিজ্ঞ আইনজীবীগনের সঠিক ও নির্ভুল প্লিডিংস, যথাসময়ে দলিলাদি প্রদর্শন ও আন্তরিকতার সাথে জড়িত। মামলার মাধ্যমে আদালতকে ব্যবহার করে হয়রানী ও জুলুম করার মানসিকতা থেকে দুবৃত্তদের ফেরাতে বিচারক, প্রসিকিউশন, বিজ্ঞ আইনজীবীদের সাহসী, নির্লোভ ও সদা তৎপর থাকতে হবে।
জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও ঢাকার জেলা প্রশাসক আবু ছালেহ মোহাম্মদ ফেরদৌস খান বলেন যে ,ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার প্রতিবন্ধকতা দূরীকরণে তার অফিস ও সহকর্মীরা সদা তৎপর ও পূর্ণ সহযোগিতার মনোভাব পোষণ করেন।
ঢাকা জেলার পুলিশ সুপার মারুফ আহমেদ, নিয়মিত এ জাতীয় কনফারেন্স অনুষ্ঠানের আহ্বান জানিয়ে বলেন যে, অদ্যকার এ সম্মেলনে আলোচিত মাদক মামলার তদন্ত সংক্রান্ত ও তদন্ত কর্মকর্তা সাক্ষীর হাজিরাসহ মামলা দ্রুত নিষ্পত্তিতে আলোচিত সুপারিশমালা পরবর্তী সম্মেলনের আগেই সমাধান করবেন।
ঢাকা জেলায় কর্মরত বিচারকদের মতামতের ভিত্তিতে প্রস্তুতকৃত মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা ও উত্তরনের উপায় বিষয়ে গবেষণালব্ধ একটি প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন ঢাকা জেলার লিগ্যাল এইড অফিসার ও সিনিয়র সহকারী জজ মোঃ আলমগীর হোসাইন। তার উপস্থাপনমতে ঢাকা জেলা জজ আদালতে ২০১৯ সালে দেওয়ানী মামলার নিষ্পত্তির হার ১০৬ ভাগের উপরে। বিচার বিভাগীয় ওই সম্মেলন উপস্থাপনা করেন সিনিয়র সহকারী জজ আফরিন আহমেদ হ্যাপী।

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!