দুপুর ১:৪৪ | শনিবার | ১৪ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং | ২৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইগাতী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এম্বুল্যান্স আছে ড্রাইভার নেই ॥ কর্মকর্তার ড্রাইভার আছে গাড়ি নেই

২ জন চিকিৎসক দিয়ে চলছে চিকিৎসা সেবা

ঝিনাইগাতী (শেরপুর) প্রতিনিধি ॥ শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রশাসনিক কর্মকর্তার ড্রাইভার থাকলেও তার ব্যবহারের জন্যে নেই কোন গাড়ি। অপরদিকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এম্বুল্যান্স থাকলেও গত ৪ বছর ধরে নেই কোন ড্রাইভার। ফলে এ উপজেলার রোগীরা সরকারি এম্বুল্যান্সের সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।
স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডাঃ অহিদ ইকবাল জানান, ৩৫ শয্যা বিশিষ্ট এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক থাকার কথা ১৭ জন। কিন্তু কাগজে-কলমে আছে ৮ জন। তন্মধ্যে ৪ জন চিকিৎসক রয়েছে ডেপুটেশনে। ২৫ নভেম্বর সরেজমিনে অনুসন্ধানে গিয়ে দেখা যায়, ছুটিতে রয়েছে ২ জন চিকিৎসক। বাকী ২ জন চিকিৎসক দিয়ে চলছে উপজেলার ৭ টি ইউনিয়নের ২ লাখ লোকের চিকিৎসা সেবা। নিয়ম অনুযায়ী জরুরি বিভাগে ২৪ ঘন্টায় চিকিৎসা সেবা দিতে প্রয়োজন হয় ৩ জন চিকিৎসক। এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রতিদিন চিকিৎসা লাভের আশায় শতশত রোগী ভিড় করে। কিন্তু ওষুধপত্র তো দূরের কথা, অনেক সময় চিকিৎসকের দেখাও মেলে না রোগীদের ভাগ্যে। ঘন্টার পর ঘন্টা দাড়িয়ে থেকে শূন্য হাতে বাড়ি ফিরতে হয় তাদের। এসব অভিযোগ রোগীদের। এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক্সরে মেশিনটি দীর্ঘদিন থেকে অকেজো। এম্বুল্যান্সের ড্রাইভার নেই গত ৪ বছর ধরে। ফলে পাহাড়ী এলাকার দরিদ্র রোগীরা সরকারী এম্বুল্যান্সের সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। অপর দিকে এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রশাসনিক কর্মকর্তার নামে কোন গাড়ি বরাদ্দ নেই । কিন্তু আছে ড্রাইভার। চিকিৎসক সংকটের কারণে এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা ব্যবস্থা ভেস্তে যেতে বসেছে।
এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ জসিম উদ্দিন বলেন, ডিসেম্বরের মধ্যেই নতুন নিয়োগকৃত চিকিৎসক যোগদানের পর চিকিৎসক সংকটের সমাধান হবে।

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর পুষ্পস্তবক নিবেদন

» পাহাড়ঘেরা সিকিম রাজ্যে

» দক্ষিণ এশিয়ায় সবচেয়ে ক্ষমতাধর নারী শেখ হাসিনা

» শেরপুরে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক উৎসব অনুষ্ঠিত

» শেরপুরে জেলা পরিষদের অর্থায়নে টিউবওয়েল বিতরণ

» কেন ১৫৯ দিন চুপ ছিলেন, জানালেন মাশরাফি

» শেরপুরে ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝির বিদায় সংবর্ধনা

» নকলায় ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস পালিত

» ‘বিগ বসে’ কি থাকছেন না সালমান?

» হিমালয় কন্যা নেপালে

» পিএসজির আগুনে পুড়ল গ্যালাতাসারে

» খালেদা জিয়া রাজি হলে উন্নত চিকিৎসা : অ্যাটর্নি জেনারেল

» ঘুষ ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে সজাগ থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

» মিয়ানমারকে বিশ্বাস করা যায় না: গাম্বিয়া

» খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  দুপুর ১:৪৪ | শনিবার | ১৪ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং | ২৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইগাতী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এম্বুল্যান্স আছে ড্রাইভার নেই ॥ কর্মকর্তার ড্রাইভার আছে গাড়ি নেই

২ জন চিকিৎসক দিয়ে চলছে চিকিৎসা সেবা

ঝিনাইগাতী (শেরপুর) প্রতিনিধি ॥ শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রশাসনিক কর্মকর্তার ড্রাইভার থাকলেও তার ব্যবহারের জন্যে নেই কোন গাড়ি। অপরদিকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এম্বুল্যান্স থাকলেও গত ৪ বছর ধরে নেই কোন ড্রাইভার। ফলে এ উপজেলার রোগীরা সরকারি এম্বুল্যান্সের সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।
স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডাঃ অহিদ ইকবাল জানান, ৩৫ শয্যা বিশিষ্ট এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক থাকার কথা ১৭ জন। কিন্তু কাগজে-কলমে আছে ৮ জন। তন্মধ্যে ৪ জন চিকিৎসক রয়েছে ডেপুটেশনে। ২৫ নভেম্বর সরেজমিনে অনুসন্ধানে গিয়ে দেখা যায়, ছুটিতে রয়েছে ২ জন চিকিৎসক। বাকী ২ জন চিকিৎসক দিয়ে চলছে উপজেলার ৭ টি ইউনিয়নের ২ লাখ লোকের চিকিৎসা সেবা। নিয়ম অনুযায়ী জরুরি বিভাগে ২৪ ঘন্টায় চিকিৎসা সেবা দিতে প্রয়োজন হয় ৩ জন চিকিৎসক। এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রতিদিন চিকিৎসা লাভের আশায় শতশত রোগী ভিড় করে। কিন্তু ওষুধপত্র তো দূরের কথা, অনেক সময় চিকিৎসকের দেখাও মেলে না রোগীদের ভাগ্যে। ঘন্টার পর ঘন্টা দাড়িয়ে থেকে শূন্য হাতে বাড়ি ফিরতে হয় তাদের। এসব অভিযোগ রোগীদের। এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক্সরে মেশিনটি দীর্ঘদিন থেকে অকেজো। এম্বুল্যান্সের ড্রাইভার নেই গত ৪ বছর ধরে। ফলে পাহাড়ী এলাকার দরিদ্র রোগীরা সরকারী এম্বুল্যান্সের সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। অপর দিকে এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রশাসনিক কর্মকর্তার নামে কোন গাড়ি বরাদ্দ নেই । কিন্তু আছে ড্রাইভার। চিকিৎসক সংকটের কারণে এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা ব্যবস্থা ভেস্তে যেতে বসেছে।
এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ জসিম উদ্দিন বলেন, ডিসেম্বরের মধ্যেই নতুন নিয়োগকৃত চিকিৎসক যোগদানের পর চিকিৎসক সংকটের সমাধান হবে।

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!