রাত ২:২১ | মঙ্গলবার | ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইগাতীর গজনী অবকাশে শতবর্ষী বটগাছে মৌমাছির মিলনমেলা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার গারো পাহাড়সংলগ্ন সীমান্তবর্তী গজনী অবকাশ কেন্দ্রে শতবর্ষের পুরনো একটি বটগাছে যেন মৌমাছির মিলনমেলা চলে। শতবর্ষী ওই গাছটিতে মৌমাছিরা ৭২টি চাক বেঁধেছে। ওইসব মৌমাছি কেউ যেন কোনো ধরনের বিরক্ত না করে সেজন্য যথেষ্ট তৎপর অবকাশ কর্তৃপক্ষ। আর এ কারণে মৌমাছিরা এখানে আসা দর্শনার্থীদের মুগ্ধ করে।
ওই বটগাছের গোড়ার দিক থেকে শুরু করে গাছের সর্বশেষ চূড়ার ডালপালাগুলোতে চাক বেঁধে মৌমাছি নির্বিঘ্নে বসবাস করছে। তাই সীমান্তবর্তী শালগজারি শোভিত নয়নাভিরাম প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমির মাঝে বাড়তি আনন্দের খোরাক জোগাচ্ছে মৌচাকগুলো।
একসঙ্গে একই গাছে ৭২টি মৌচাক বর্তমান সময়ের একটি বিরল ঘটনা। সেই কারণে অনেক দর্শনার্থী গজনী অবকাশে বেড়াতে এসে ওই বটগাছের কাছে গিয়ে ক্ষণিকের জন্য থমকে দাঁড়ান এবং বিস্মিত হয়ে মৌচাকগুলো আগ্রহ ভরে দেখে আনন্দিত হন। গত কয়েক বছর ধরেই মৌমাছিগুলো ওই পুরনো বটগাছে চাক বাঁধছে বলে স্থানীয়রা জানান।
দর্শনার্থী রফিকুল ইসলাম বলেন, মৌচাকগুলোতে কোনো ঢিলাঢিলি নেই। সেজন্য নির্বিঘ্নে তারা বসবাস করছে। এটা দর্শনার্থীদের জন্য বাড়তি আকর্ষণ।

img-add

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলার দর্শনার্থী আহসান হাবীব বলেন, অবকাশে বেড়াতে এসে দেখলাম একটি বটগাছে ৭২-৭৩টি মৌচাক। একটি গাছে এতগুলো চাক হতে পারে, তা কখনও ভাবতে পারিনি। এই প্রথম দেখলাম।
এ বিষয়ে শেরপুর জেলা বিসিকের উপ-ব্যবস্থাপক তামান্না মহল বলেন, ওই বটগাছে মৌচাক করা মৌমাছিগুলো ডাচ জাতের বন মৌমাছি। এরা সংঘবদ্ধভাবে একসঙ্গে এক স্থানে বসবাস করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে এবং ভালোবাসে। এছাড়া গারো পাহাড়সংলগ্ন বনে এখন প্রচুর পাহাড়ি ফুল ও এদের খাবার রয়েছে। তাই ওই মৌমাছিরা আগামী বর্ষা আসার আগপর্যন্ত প্রায় ৬ মাস সেখানে থেকে পরে অন্যত্র চলে যাবে।
ঝিনাইগাতী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবেল মাহমুদ বলেন, একটি গাছে এতগুলো মৌচাক সচরাচর দেখা যায় না। বটগাছটিতে ৭০ থেকে ৭৫টি মৌচাক রয়েছে। এসব মৌচাক থেকে কেউ যেন মধু আহরণ এবং মৌমাছিদের বিরক্ত না করে, সেজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এসব মৌচাক ভ্রমণপিপাসুদের কাছে গজনী অবকাশ কেন্দ্রের আকর্ষণ বাড়িয়ে দিয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
এ সংক্রান্ত আরও খবর

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» শেরপুরে সরকারি খরচে আইনগত সহায়তা প্রদান বিষয়ক প্রাতিষ্ঠানিক গণশুনানী

» বঙ্গবন্ধু ৩৬তম এ্যাথলেটিকসে স্বর্ণপদক পেলো শেরপুরের সেকান্দর আলী কলেজের ছাত্র নাঈম

» উসকানিমূলক বক্তব্য দিলে সরকার বসে থাকবে না : তথ্যমন্ত্রী

» একসঙ্গে ৪২ ও ৪৩ তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি, নিয়োগ ৩৮১৪

» অবশেষে সিয়াম-পরীর ‘বিশ্বসুন্দরী’

» শেরপুরে মৌলবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে যুবলীগের বিক্ষোভ মিছিল

» শেরপুরে স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্মবিরতি ॥ ভোগান্তিতে শিশু ও গর্ভবতী নারীসহ সেবাপ্রার্থীরা

» শ্রীবরদীতে স্কুলছাত্রী ধর্ষণ, ধর্ষক পলাতক

» শেরপুরে মেয়র মনোনয়নপ্রত্যাশী আ’লীগ নেতা আধারের গণসংযোগ অব্যাহত

» জয়কে ১নং সদস্য করে পীরগঞ্জ আ’লীগের কমিটি অনুমোদন

» ১৩ তম জাতীয় আয়কর দিবস আজ

» চেলসিকে রুখে দিয়ে শীর্ষে ফিরলো টটেনহ্যাম

» বিয়ে করছেন অঙ্কুশ-ঐন্দ্রিলা

» শ্রীবরদীতে ইটভাটার পাহারাদার হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার ৩

» শ্রীবরদীর ৩ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামী ঢাকা থেকে গ্রেফতার

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  রাত ২:২১ | মঙ্গলবার | ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইগাতীর গজনী অবকাশে শতবর্ষী বটগাছে মৌমাছির মিলনমেলা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার গারো পাহাড়সংলগ্ন সীমান্তবর্তী গজনী অবকাশ কেন্দ্রে শতবর্ষের পুরনো একটি বটগাছে যেন মৌমাছির মিলনমেলা চলে। শতবর্ষী ওই গাছটিতে মৌমাছিরা ৭২টি চাক বেঁধেছে। ওইসব মৌমাছি কেউ যেন কোনো ধরনের বিরক্ত না করে সেজন্য যথেষ্ট তৎপর অবকাশ কর্তৃপক্ষ। আর এ কারণে মৌমাছিরা এখানে আসা দর্শনার্থীদের মুগ্ধ করে।
ওই বটগাছের গোড়ার দিক থেকে শুরু করে গাছের সর্বশেষ চূড়ার ডালপালাগুলোতে চাক বেঁধে মৌমাছি নির্বিঘ্নে বসবাস করছে। তাই সীমান্তবর্তী শালগজারি শোভিত নয়নাভিরাম প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমির মাঝে বাড়তি আনন্দের খোরাক জোগাচ্ছে মৌচাকগুলো।
একসঙ্গে একই গাছে ৭২টি মৌচাক বর্তমান সময়ের একটি বিরল ঘটনা। সেই কারণে অনেক দর্শনার্থী গজনী অবকাশে বেড়াতে এসে ওই বটগাছের কাছে গিয়ে ক্ষণিকের জন্য থমকে দাঁড়ান এবং বিস্মিত হয়ে মৌচাকগুলো আগ্রহ ভরে দেখে আনন্দিত হন। গত কয়েক বছর ধরেই মৌমাছিগুলো ওই পুরনো বটগাছে চাক বাঁধছে বলে স্থানীয়রা জানান।
দর্শনার্থী রফিকুল ইসলাম বলেন, মৌচাকগুলোতে কোনো ঢিলাঢিলি নেই। সেজন্য নির্বিঘ্নে তারা বসবাস করছে। এটা দর্শনার্থীদের জন্য বাড়তি আকর্ষণ।

img-add

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলার দর্শনার্থী আহসান হাবীব বলেন, অবকাশে বেড়াতে এসে দেখলাম একটি বটগাছে ৭২-৭৩টি মৌচাক। একটি গাছে এতগুলো চাক হতে পারে, তা কখনও ভাবতে পারিনি। এই প্রথম দেখলাম।
এ বিষয়ে শেরপুর জেলা বিসিকের উপ-ব্যবস্থাপক তামান্না মহল বলেন, ওই বটগাছে মৌচাক করা মৌমাছিগুলো ডাচ জাতের বন মৌমাছি। এরা সংঘবদ্ধভাবে একসঙ্গে এক স্থানে বসবাস করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে এবং ভালোবাসে। এছাড়া গারো পাহাড়সংলগ্ন বনে এখন প্রচুর পাহাড়ি ফুল ও এদের খাবার রয়েছে। তাই ওই মৌমাছিরা আগামী বর্ষা আসার আগপর্যন্ত প্রায় ৬ মাস সেখানে থেকে পরে অন্যত্র চলে যাবে।
ঝিনাইগাতী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবেল মাহমুদ বলেন, একটি গাছে এতগুলো মৌচাক সচরাচর দেখা যায় না। বটগাছটিতে ৭০ থেকে ৭৫টি মৌচাক রয়েছে। এসব মৌচাক থেকে কেউ যেন মধু আহরণ এবং মৌমাছিদের বিরক্ত না করে, সেজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এসব মৌচাক ভ্রমণপিপাসুদের কাছে গজনী অবকাশ কেন্দ্রের আকর্ষণ বাড়িয়ে দিয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
এ সংক্রান্ত আরও খবর

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!