সন্ধ্যা ৭:১৫ | মঙ্গলবার | ৩১শে মার্চ, ২০২০ ইং | ১৭ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইগাতীতে ৮০ বছরেও বয়স্কভাতার কার্ড মেলেনি বাউল আব্দুর রহমানের

খোরশেদ আলম, ঝিনাইগাতী (শেরপুর) ॥ শেরপুরের ঝিনাইগাতীর বিখ্যাত বাউল আব্দুর রহমানের ভাগ্যে ৮০ বছরেও মেলেনি বয়স্কভাতার কার্ড। তার দিনও কাটে এখন খেয়ে, না খেয়ে। আব্দুর রহমান উপজেলার গৌরীপুর ইউনিয়নের মনাকোষা গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে।
জানা যায়, ৩ ছেলেসহ ৫ সদস্যের পরিবার আব্দুর রহমানের। পাকিস্তান আমল থেকেই তিনি বাউল গান, জারী গান, বিচ্ছেদ গান গেয়ে চষে বেড়াতেন উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে-গঞ্জে। ১২ একর জমিও ছিলেন তার। তিনি জীবন-জীবিকার প্রতি মনোযোগী না হয়ে গানই ছিল তার জীবনের সবকিছু। এভাবেই ১২ একর জমি খুইয়েছেন তিনি। এখন আব্দুর রহমানের বয়স ৮০ ছুঁইছুঁই। জীবনের শেষ প্রান্তে এসে গানই এখন তার জীবিকার উৎস হয়ে দাঁড়িয়েছে। বয়সের ভারে নুইয়ে পড়েছেন, চোখেও কম দেখেন তিনি। এরপরেও লাঠিভর করে প্রতিদিন বের হতে হয় গান গাইতে। এখনও তার মধুর কণ্ঠের গানের তুলনা নেই। তার গান একবার শুনলে বারবার শুনতে ইচ্ছে করবে যে কারও। তিনি রাস্তার মোড়ে বিভিন্ন হাটে-বাজারে ও গ্রামে গান গেয়ে থাকেন। এলাকা ছাড়াও তিনি গান গাইতে যান দেশের দূর-দূরান্ত অঞ্চলে। গান গেয়ে যা পান তাই দিয়ে কোন রকমে চলে তার সংসার। অনেক সময় অনাহারে, অর্ধাহারে থাকতে হয় তাকে। বসতভিটার ৯ শতাংশ জমি ছাড়া সহায়-সম্বল বলতে এখন আর কিছুই নেই। থাকার ঘরটিও ভেঙ্গে বসবাসের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। ৩ ছেলে বিয়েশাদি করে আলাদা সংসার করছে। গান গেয়ে যা অর্থ পান তা দিয়ে সংসার চলে না তাদের।

img-add

আব্দুর রহমানের সাথে কথা হলে তিনি আক্ষেপ করে বলেন, ঘর তো দূরের কথা, একটি বয়স্ক ভাতার কার্ডের জন্য জনপ্রতিনিধিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেছেন অনেক। কিন্তু আজও তার ভাগ্যে জুটেনি বয়স্ক ভাতা’র কার্ড।
এ ব্যাপারে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান মন্টু জানান, বয়স্ক ভাতার কার্ড বরাদ্দ পাওয়া গেছে। শীঘ্রই তার নামে কার্ডের ব্যবস্থা করা হবে।

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» করোনা মহামারীতে এশিয়ার অর্থনীতিতে ধস নামতে পারে : বিশ্ব ব্যাংক

» গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ২ জন করোনায় আক্রান্ত : আইইডিসিআর

» শেরপুরে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় জনগণকে আরও সতর্ক হওয়ার আহবান জানালেন হুইপ আতিক

» ছুটি বাড়ল ১১ এপ্রিল পর্যন্ত

» করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি ॥ শেরপুরে একদিনে জেলা প্রশাসনের ৩০ অভিযান

» প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা ॥ শেরপুরে সাড়ে ৮ হাজার পরিবার পেলো খাদ্য সামগ্রী

» জ্বর-সর্দি-কাশি-শ্বাসকষ্টে সারাদেশে ৬ জনের মৃত্যু

» করোনা ভাইরাসের তান্ডবে যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যু ৩০০০ ছাড়ালো

» সাধারণ ছুটির মেয়াদ বাড়বে : শেখ হাসিনা

» ঝিনাইগাতীতে করোনা প্রতিরোধে ব্র্যাকের গণমুখী কর্মসূচি

» ঝিনাইগাতীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ভাতিজার হাতে বৃদ্ধ চাচা খুন : গ্রেফতার ১

» শেরপুরে হতদরিদ্রদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করলেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রুমান

» করোনা প্রতিরোধে শেরপুরে প্রত্যন্ত অঞ্চলেও সচেতনতামূলক কার্যক্রম চালাচ্ছে পুলিশ

» করোনা জনসচেতনতায় কুদ্দুস বয়াতীর গান

» অরবিয়া তানজীল’র গদ্য ‌’উড়ন্ত মানবী’

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  সন্ধ্যা ৭:১৫ | মঙ্গলবার | ৩১শে মার্চ, ২০২০ ইং | ১৭ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইগাতীতে ৮০ বছরেও বয়স্কভাতার কার্ড মেলেনি বাউল আব্দুর রহমানের

খোরশেদ আলম, ঝিনাইগাতী (শেরপুর) ॥ শেরপুরের ঝিনাইগাতীর বিখ্যাত বাউল আব্দুর রহমানের ভাগ্যে ৮০ বছরেও মেলেনি বয়স্কভাতার কার্ড। তার দিনও কাটে এখন খেয়ে, না খেয়ে। আব্দুর রহমান উপজেলার গৌরীপুর ইউনিয়নের মনাকোষা গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে।
জানা যায়, ৩ ছেলেসহ ৫ সদস্যের পরিবার আব্দুর রহমানের। পাকিস্তান আমল থেকেই তিনি বাউল গান, জারী গান, বিচ্ছেদ গান গেয়ে চষে বেড়াতেন উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে-গঞ্জে। ১২ একর জমিও ছিলেন তার। তিনি জীবন-জীবিকার প্রতি মনোযোগী না হয়ে গানই ছিল তার জীবনের সবকিছু। এভাবেই ১২ একর জমি খুইয়েছেন তিনি। এখন আব্দুর রহমানের বয়স ৮০ ছুঁইছুঁই। জীবনের শেষ প্রান্তে এসে গানই এখন তার জীবিকার উৎস হয়ে দাঁড়িয়েছে। বয়সের ভারে নুইয়ে পড়েছেন, চোখেও কম দেখেন তিনি। এরপরেও লাঠিভর করে প্রতিদিন বের হতে হয় গান গাইতে। এখনও তার মধুর কণ্ঠের গানের তুলনা নেই। তার গান একবার শুনলে বারবার শুনতে ইচ্ছে করবে যে কারও। তিনি রাস্তার মোড়ে বিভিন্ন হাটে-বাজারে ও গ্রামে গান গেয়ে থাকেন। এলাকা ছাড়াও তিনি গান গাইতে যান দেশের দূর-দূরান্ত অঞ্চলে। গান গেয়ে যা পান তাই দিয়ে কোন রকমে চলে তার সংসার। অনেক সময় অনাহারে, অর্ধাহারে থাকতে হয় তাকে। বসতভিটার ৯ শতাংশ জমি ছাড়া সহায়-সম্বল বলতে এখন আর কিছুই নেই। থাকার ঘরটিও ভেঙ্গে বসবাসের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। ৩ ছেলে বিয়েশাদি করে আলাদা সংসার করছে। গান গেয়ে যা অর্থ পান তা দিয়ে সংসার চলে না তাদের।

img-add

আব্দুর রহমানের সাথে কথা হলে তিনি আক্ষেপ করে বলেন, ঘর তো দূরের কথা, একটি বয়স্ক ভাতার কার্ডের জন্য জনপ্রতিনিধিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেছেন অনেক। কিন্তু আজও তার ভাগ্যে জুটেনি বয়স্ক ভাতা’র কার্ড।
এ ব্যাপারে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান মন্টু জানান, বয়স্ক ভাতার কার্ড বরাদ্দ পাওয়া গেছে। শীঘ্রই তার নামে কার্ডের ব্যবস্থা করা হবে।

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!