সন্ধ্যা ৭:২৮ | বৃহস্পতিবার | ২৯শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইগাতীতে ৫ বছরেও খাদিজার ভাগ্যে জুটেনি একটি ঘর

খোরশেদ আলম, ঝিনাইগাতী ॥ শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে ৫ বছরেও খাদিজা বেগমের ভাগ্যে জুটেনি সরকারী ঘর। খাদিজা বেগম উপজেলার নলকুড়া ইউনিয়ের দক্ষিণ ডেফলাই গ্রামের নুর হোসেনের স্ত্রী। নুর ইসলাম রোগাক্রান্ত ও কর্মহীন। ১ ছেলে ৪ মেয়েসহ ৭ সদস্যের পরিবারের বোঁঝা খাদিজা বেগমকে একা বহন করতে হচ্ছে। বসত বাড়ীর জমিটুকু ছাড়া সহায় সম্বল বলতে আর কিছুই নেই তার। খাদিজা বেগম বাড়িতে কাপর সেলাই করে যা আয় হয়, তাই দিয়ে কোন রকমে খেয়ে না খেয়ে চলে তার সংসার। বসতবাড়ীর ঘরটিও বসবাসের অনুপযোগী। অর্থের অভাবে মেরামত করতে পারছেন না।

img-add

জানা যায়, একটি সরকারি ঘর বরাদ্দ চেয়ে গত ৫ বছরে জন প্রতিনিধিদের কাছে বহু আবেদন নিবেদন করেছেন, কিন্তু কোন কাজ হয়নি। গত প্রায় ৩ বছর পূর্বে খাদিজা বেগম তার ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জিয়াউর রহমানের কাছে একটি ঘর বরাদ্দ দেয়ার জন্য আবেদন করেন। তখন ওই ইউপি সদস্য তার কাছে ৩০ হাজার টাকা দাবি করেন। ওই ইউপি সদস্যের দাবি অনুযায়ী টাকা না দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। পরে খাদিজা বেগম ধার-দেনা করে ১৪ হাজার টাকা দেন ওই ইউপি সদস্যকে। কিন্তু এর পরেও খাদিজা বেগমের ভাগ্যে জুটেনি সরকারি কোন ঘর। ফিরে পাননি তার দেয়া টাকা। ওই টাকা উদ্ধারের দাবিতে প্রশাসন ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও কোন কাজ হয়নি। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবেল মাহমুদের বরাবর একটি লিখিত আবেদন করেছেন তিনি।

এ বিষয়ে ইউপি সদস্য জিয়াউর রহমানের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আমি তার কাছ থেকে কোন টাকা নেয়নি। ইউএনও রুবেল মাহমুদ অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ওই ধরনের আরও কয়েকটি অভিযোগ তার বিরুদ্ধে পাওয়া গেছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email
এ সংক্রান্ত আরও খবর

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» দেশকে আরও মর্যাদাপূর্ণ অবস্থানে নেওয়ার লক্ষ্যে দায়িত্ব পালন করছি : প্রধানমন্ত্রী

» নকলায় ফ্রিল্যান্সিং/আউটসোর্সিং সেমিনার ও প্রশিক্ষণ’র উদ্বোধন

» ঝিনাইগাতীতে গৃহবধূকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার

» চার কোটি অতিক্রম করলো কণার ‘ইচ্ছেগুলো’ (ভিডিও)

» সাকিবের ফেরা নিয়ে মুশফিকের আবেগঘন স্ট্যাটাস

» গত এক যুগে ৪৫০ কিমি মহাসড়ক ৪ লেনে উন্নীত হয়েছে : কাদের

» ধর্ম অবমাননা বিদ্বেষ ও সহিংস উগ্রবাদ উসকে দেয় : জাতিসংঘ

» শেরপুরে প্রাথমিক সমাপনীতে বৃত্তিপ্রাপ্ত ২৫৫ শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা

» ফ্রান্সে ইসলাম ধর্মের অবমাননা ও মহানবীর ব্যঙ্গচিত্র কার্টুনের প্রতিবাদে শেরপুরে প্রতিবাদ সমাবেশ

» শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ল ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত

» শেরপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মেরাজ উদ্দিনের ৫০তম জন্মদিন পালিত

» শ্রীবরদীতে চকলেট দেওয়ার প্রলোভনে শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা

» নালিতাবাড়ীতে শিক্ষক ও কর্মচারী কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়নের ১১তম বার্ষিক সাধারণ সভা

» নালিতাবাড়ীতে ফাতেমা রাণীর তীর্থ উৎসব শুক্রবার

» শেরপুরে ৩ সপ্তাহেও উদঘাটন হয়নি সেনাসদস্যের স্ত্রী হত্যারহস্য

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  সন্ধ্যা ৭:২৮ | বৃহস্পতিবার | ২৯শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইগাতীতে ৫ বছরেও খাদিজার ভাগ্যে জুটেনি একটি ঘর

খোরশেদ আলম, ঝিনাইগাতী ॥ শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে ৫ বছরেও খাদিজা বেগমের ভাগ্যে জুটেনি সরকারী ঘর। খাদিজা বেগম উপজেলার নলকুড়া ইউনিয়ের দক্ষিণ ডেফলাই গ্রামের নুর হোসেনের স্ত্রী। নুর ইসলাম রোগাক্রান্ত ও কর্মহীন। ১ ছেলে ৪ মেয়েসহ ৭ সদস্যের পরিবারের বোঁঝা খাদিজা বেগমকে একা বহন করতে হচ্ছে। বসত বাড়ীর জমিটুকু ছাড়া সহায় সম্বল বলতে আর কিছুই নেই তার। খাদিজা বেগম বাড়িতে কাপর সেলাই করে যা আয় হয়, তাই দিয়ে কোন রকমে খেয়ে না খেয়ে চলে তার সংসার। বসতবাড়ীর ঘরটিও বসবাসের অনুপযোগী। অর্থের অভাবে মেরামত করতে পারছেন না।

img-add

জানা যায়, একটি সরকারি ঘর বরাদ্দ চেয়ে গত ৫ বছরে জন প্রতিনিধিদের কাছে বহু আবেদন নিবেদন করেছেন, কিন্তু কোন কাজ হয়নি। গত প্রায় ৩ বছর পূর্বে খাদিজা বেগম তার ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জিয়াউর রহমানের কাছে একটি ঘর বরাদ্দ দেয়ার জন্য আবেদন করেন। তখন ওই ইউপি সদস্য তার কাছে ৩০ হাজার টাকা দাবি করেন। ওই ইউপি সদস্যের দাবি অনুযায়ী টাকা না দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। পরে খাদিজা বেগম ধার-দেনা করে ১৪ হাজার টাকা দেন ওই ইউপি সদস্যকে। কিন্তু এর পরেও খাদিজা বেগমের ভাগ্যে জুটেনি সরকারি কোন ঘর। ফিরে পাননি তার দেয়া টাকা। ওই টাকা উদ্ধারের দাবিতে প্রশাসন ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও কোন কাজ হয়নি। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবেল মাহমুদের বরাবর একটি লিখিত আবেদন করেছেন তিনি।

এ বিষয়ে ইউপি সদস্য জিয়াউর রহমানের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আমি তার কাছ থেকে কোন টাকা নেয়নি। ইউএনও রুবেল মাহমুদ অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ওই ধরনের আরও কয়েকটি অভিযোগ তার বিরুদ্ধে পাওয়া গেছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email
এ সংক্রান্ত আরও খবর

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!