রাত ২:২৩ | শনিবার | ৪ঠা জুলাই, ২০২০ ইং | ২০শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইগাতীতে করোনা পরিস্থিতিতে বিপাকে সবজি চাষীরা

খোরশেদ আলম, ঝিনাইগাতী (শেরপুর) ॥ শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে করোনা ভাইরাসজনিত পরিস্থিতিতে বিপাকে পড়েছেন সবজি চাষীরা। উৎপাদিত সবজির বাজারজাত করাসহ ন্যায্যমূল্য না পাওয়ায় শতশত কৃষক পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন।
উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে উপজেলায় প্রায় ৫ হাজার কৃষক সবজি চাষ করেছেন। সবজি চাষের উপর নির্ভরশীল ওইসব প্রান্তিক চাষীরা। সবজি চাষ করেই জীবন-জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন তারা। কিন্তু চলতি মৌসুমে সবজি উৎপাদনের শুরুতেই করোনা পরিস্থিতিতে দেশে শুরু হয় অঘোষিত লকডাউন। ফলে উৎপাদিত সবজি নিয়ে বিপাকে পড়ে চাষীরা। দেশের বিভিন্ন স্থানে উৎপাদিত সবজি বাজারজাত করতে পারেননি কৃষকরা।

img-add

সরেজমিনে উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে অনুসন্ধানে গিয়ে কৃষকদের সাথে কথা বলে ওইসব দুর্ভোগের বিষয়ে জানা গেছে। বাকাকুড়া গ্রামের সবজি চাষী নবাব আলী জানান, তিনি ঋণ-ধার করে প্রায় ১ একর জমিতে সবজি চাষ করেন। কিন্তু উৎপাদিত সবজি বাজারজাত করতে না পেরে ক্ষেতেই তার পুরো সবজি নষ্ট হয়ে যায়। ফলে তিনি এখন রয়েছেন চরম বিপাকে। না পারছে ঋণ পরিশোধ করতে, না পারছেন পরিবারের সদস্যদের ভরণপোষণ যোগাতে। গোমড়া গ্রামের বজলু মিয়া ও আঞ্জুয়ারা বেওয়া জানান, তারা উভয়ই ৩০ শতাংশ করে জমিতে সবজি চাষ করেছিলেন। সবজি উৎপাদন হলেও স্বল্পমূল্যে স্থানীয় হাট-বাজার গুলোতে বিক্রি করতে হয়েছে এসব সবজি। এছাড়া সবজি বিক্রি করতে না পারায় ক্ষেতেই পচে নষ্ট হয়েছেসবজি।এতে উৎপাদন খরচ উঠেনি তাদের। সন্ধ্যাকুড়া গ্রামের কৃষক আবু তালেব, গোমড়া গ্রামের আবুল কাশেম, আব্দুল করিম, জামাল ভান্ডারীসহ আরও অনেকেই জানান, লকডাউন পরিস্থিতি শিথিল হওয়ার পূর্বেই গত ২৪মে কালবৈশাখীর ছোবলে তাদের সবজি আবাদের ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হয়। বিধ্বস্ত হয়ে পড়ে তাদেরসবজি মাচা। জোড়া তালি দিয়ে আবারও ওই সবজি ক্ষেত দাড় করানো হলেও কিন্তু সবজি উৎপাদন হচ্ছে না জমিতে। বর্তমানে বাজারে সবজির মূল্য বৃদ্ধি পেলেও উৎপাদন না থাকায় সন্তুষ্ট না কৃষকরা। ফলে শত শত সবজি চাষী পড়েছেন বিপাকে।
এ ব্যাপারে ঝিনাইগাতী উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা কৃষিবিদ হুমায়ুন কবির বলেন, করোনা পরিস্থিতি ও প্রাকৃতিক দূর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের সরকারিভাবে প্রণোদনার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও খবর

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» শেরপুর সদর থানার ওসি মামুন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত

» নালিতাবাড়ীতে বিলে মাছ ধরতে গিয়ে বজ্রপাতে কিশোরের মৃত্যু

» Finite ও Non finite verb নিয়ে আলোচনা

» শেরপুরে র‌্যাবের হাতে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

» তারাকান্দার ইউএনওর করোনা পজিটিভ

» জামালপুরে বন্যার অবনতি, পানিতে ডুবে ৩ শিশুর মৃত্যু

» নকলায় ব্রহ্মপুত্রের ভাঙন ॥ বিলীনের মুখে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

» শ্রীবরদীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু

» শেরপুরে করোনায় সুস্থতার হার ৮১ ভাগ

» ঝিনাইগাতী মহিলা কলেজ অধ্যক্ষের সীমাহীন দুর্নীতি ॥ দীর্ঘদিন কর্মরত ২ প্রভাষক এমপিও বঞ্চিত!

» শেরপুরে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করলের সাবেক পৌর প্যানেল মেয়র

» দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দেড় লাখ ছাড়াল : নতুন মৃত্যু ৩৮

» দেশে প্রথম করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কারের দাবি গ্লোব বায়োটেকের

» মিয়ানমারে খনিতে ভূমিধসে নিহত ১১৩

» নভেম্বরেই দৃশ্যমান হবে স্বপ্নের পদ্মা সেতু

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  রাত ২:২৩ | শনিবার | ৪ঠা জুলাই, ২০২০ ইং | ২০শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইগাতীতে করোনা পরিস্থিতিতে বিপাকে সবজি চাষীরা

খোরশেদ আলম, ঝিনাইগাতী (শেরপুর) ॥ শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে করোনা ভাইরাসজনিত পরিস্থিতিতে বিপাকে পড়েছেন সবজি চাষীরা। উৎপাদিত সবজির বাজারজাত করাসহ ন্যায্যমূল্য না পাওয়ায় শতশত কৃষক পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন।
উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে উপজেলায় প্রায় ৫ হাজার কৃষক সবজি চাষ করেছেন। সবজি চাষের উপর নির্ভরশীল ওইসব প্রান্তিক চাষীরা। সবজি চাষ করেই জীবন-জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন তারা। কিন্তু চলতি মৌসুমে সবজি উৎপাদনের শুরুতেই করোনা পরিস্থিতিতে দেশে শুরু হয় অঘোষিত লকডাউন। ফলে উৎপাদিত সবজি নিয়ে বিপাকে পড়ে চাষীরা। দেশের বিভিন্ন স্থানে উৎপাদিত সবজি বাজারজাত করতে পারেননি কৃষকরা।

img-add

সরেজমিনে উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে অনুসন্ধানে গিয়ে কৃষকদের সাথে কথা বলে ওইসব দুর্ভোগের বিষয়ে জানা গেছে। বাকাকুড়া গ্রামের সবজি চাষী নবাব আলী জানান, তিনি ঋণ-ধার করে প্রায় ১ একর জমিতে সবজি চাষ করেন। কিন্তু উৎপাদিত সবজি বাজারজাত করতে না পেরে ক্ষেতেই তার পুরো সবজি নষ্ট হয়ে যায়। ফলে তিনি এখন রয়েছেন চরম বিপাকে। না পারছে ঋণ পরিশোধ করতে, না পারছেন পরিবারের সদস্যদের ভরণপোষণ যোগাতে। গোমড়া গ্রামের বজলু মিয়া ও আঞ্জুয়ারা বেওয়া জানান, তারা উভয়ই ৩০ শতাংশ করে জমিতে সবজি চাষ করেছিলেন। সবজি উৎপাদন হলেও স্বল্পমূল্যে স্থানীয় হাট-বাজার গুলোতে বিক্রি করতে হয়েছে এসব সবজি। এছাড়া সবজি বিক্রি করতে না পারায় ক্ষেতেই পচে নষ্ট হয়েছেসবজি।এতে উৎপাদন খরচ উঠেনি তাদের। সন্ধ্যাকুড়া গ্রামের কৃষক আবু তালেব, গোমড়া গ্রামের আবুল কাশেম, আব্দুল করিম, জামাল ভান্ডারীসহ আরও অনেকেই জানান, লকডাউন পরিস্থিতি শিথিল হওয়ার পূর্বেই গত ২৪মে কালবৈশাখীর ছোবলে তাদের সবজি আবাদের ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হয়। বিধ্বস্ত হয়ে পড়ে তাদেরসবজি মাচা। জোড়া তালি দিয়ে আবারও ওই সবজি ক্ষেত দাড় করানো হলেও কিন্তু সবজি উৎপাদন হচ্ছে না জমিতে। বর্তমানে বাজারে সবজির মূল্য বৃদ্ধি পেলেও উৎপাদন না থাকায় সন্তুষ্ট না কৃষকরা। ফলে শত শত সবজি চাষী পড়েছেন বিপাকে।
এ ব্যাপারে ঝিনাইগাতী উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা কৃষিবিদ হুমায়ুন কবির বলেন, করোনা পরিস্থিতি ও প্রাকৃতিক দূর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের সরকারিভাবে প্রণোদনার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও খবর

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!