সকাল ৮:২৯ | শনিবার | ১৪ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং | ২৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

খারাপ সময়ে আগুয়েরোর সাহায্য পেয়েছি: জেসুস

img-add

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : ২০১৭ সালে পালমেইরাস থেকে ম্যানচেস্টার সিটিতে যোগ দিয়ে রাতারাতি তারকা বনে যান ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার গ্যাব্রিয়েল জেসুস। প্রথম মৌসুমে সব ধরনের প্রতিযোগিতায় ৪২ ম্যাচে ১৭ গোল করেন। পাঁচটি গোলও করিয়েছেন। যদিও ২০১৮/১৯ মৌসুমের শুরুটা ভালো যাচ্ছিল না জেসুসের। যদিও মৌসুমের শেষ পর্যন্ত ৪৭ ম্যাচে ২১ গোল করে ছয়টি গোল করান ২২ বছর বয়সী এই তরুণ। আর এই সফলতার পেছনে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনার তারকা সার্জিও আগুয়েরোর হাত রয়েছে বলে উল্লেখ করেছেন জেসুস।
সাংবাদিক জেসুস বলেন, সব শেষ মৌসুমের প্রথম দিকে সিটির হয়ে বেশ বাজে সময় পাড় করছিলাম আমি। ফর্ম না থাকার কারণে বেশি ম্যাচও খেলতে পারছিলাম না। এসময় আমার পরিবার ও কাছের কিছু মানুষ আমাকে সাহায্য করেছিল। আমার শারীরিক প্রশিক্ষকও আমাকে সহায়তা করেছেন।
২০১৮/১৯ মৌসুমে ম্যান সিটির প্রথম ১৬ ম্যাচের মধ্যে মাত্র একটি গোল ছিল জেসুসের। যদিও শেষ পর্যন্ত জ্বলে ওঠেন তিনি।

ব্রাজিলিয়ান এই তারকা বলেন, চেষ্টা করছিলাম বেশি গোল করার জন্য। যদিও আমার শটগুলো ছিল দুর্বল। বেশ কয়েকটি ম্যাচ ছিল যেখানে আমি শটও নিতে পারিনি। আর এই কারণে জটিলতা সৃষ্টি হচ্ছিল।
২০০৭ সালের পর প্রথমবারের মতো কোপা আমেরিকা আয়োজন করছে ব্রাজিল। স্কোয়াডের অন্যতম প্রধান সদস্য হিসেবে রয়েছেন জেসুস।
২২ বছর বয়সী এই তরুণ ম্যানচেস্টার সিটির সতীর্থ আগুয়েরো ও নিকোলাস ওতামেন্ডির বিপক্ষে বুধবার কোপার সেমি-ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছেন।
জেসুস জানালেন, নিজের খারাপ সময়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বি দল আর্জেন্টিনার ফরোয়ার্ড আগুয়েরোকে কাছে পেয়েছেন। শিখেছেন তার কাছ থেকেও।
জেসুস বলেন, বর্তমানে আমি অনেক শুট করছি। পরিবর্তন এসেছে নিজের মধ্যে। সিটি আর জাতীয় দল দুটির হয়েই পরিবর্তন আনতে পেরেছি।

অন্যদের তুলনায় আমি আগুয়েরোর দিকে বেশি নজর রাখতাম উল্লেখ করে জেসুস বলেন, কারণ তিনি (আগুয়েরো) অনেক শুট করে থাকেন। এর এই কারণে গোল করতে সহজ হয়। আমি তার থেকে অনেক কিছু শিখেছি। তবে এখন আমরা ভিন্ন দুই দলের হয়ে খেলছি।
ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা খেলা মানে মাঠ ও মাঠের বাইরে অন্যরকম উত্তাপ। পুরো বিশ্বের নজর জেনো আটকে আছে এই দুই দলের পায়ের দিকেই। হাই-ভোল্টেজ এই ম্যাচ নিয়ে ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার বলেন, দুটি দলই জায়ান্ট। ফুটবলে যাদের রয়েছে বর্ণিল ইতিহাস। আমরা যতবার ঘরের মাঠে খেলেছি ততবার বাড়তি সুবিধা পেয়েছি। তাদের বিপক্ষে বাড়তি চাপও রয়েছে।
জাতীয় দলের হয়ে লড়াই করলেও ব্যক্তিগতভাবে তাদের মধ্যে রয়েছে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক। সতীর্থ আগুয়েরোকে নিয়ে জেসুস বলেন, আমি তার বিপক্ষে কোনও বাজি ধরতে চাই না। তিনি তার নিজের দলের জন্য খেলছে আর আমি আমার। যখন আমি ফিরব (ম্যানসিটিতে) তখন তাকে এবং ওতামেন্ডিকেও বিরক্ত করব।

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» শেরপুরে জেলা পরিষদের অর্থায়নে টিউবওয়েল বিতরণ

» কেন ১৫৯ দিন চুপ ছিলেন, জানালেন মাশরাফি

» শেরপুরে ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝির বিদায় সংবর্ধনা

» নকলায় ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস পালিত

» ‘বিগ বসে’ কি থাকছেন না সালমান?

» হিমালয় কন্যা নেপালে

» পিএসজির আগুনে পুড়ল গ্যালাতাসারে

» খালেদা জিয়া রাজি হলে উন্নত চিকিৎসা : অ্যাটর্নি জেনারেল

» ঘুষ ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে সজাগ থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

» মিয়ানমারকে বিশ্বাস করা যায় না: গাম্বিয়া

» খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ

» ফেক নিউজ ঠেকাতে লড়াইয়ের ঘোষণা ফেসবুকের

» বালিশ কাণ্ডে গণপূর্তের নির্বাহী প্রকৌশলীসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে মামলার অনুমোদন

» নাগরিকত্ব সংশোধন বিল: আসামে কারফিউ উপেক্ষা করে রাস্তায় জনতা

» নকলায় আমন ধান সংগ্রহ অভিযান উদ্বোধন

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  সকাল ৮:২৯ | শনিবার | ১৪ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং | ২৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

খারাপ সময়ে আগুয়েরোর সাহায্য পেয়েছি: জেসুস

img-add

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : ২০১৭ সালে পালমেইরাস থেকে ম্যানচেস্টার সিটিতে যোগ দিয়ে রাতারাতি তারকা বনে যান ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার গ্যাব্রিয়েল জেসুস। প্রথম মৌসুমে সব ধরনের প্রতিযোগিতায় ৪২ ম্যাচে ১৭ গোল করেন। পাঁচটি গোলও করিয়েছেন। যদিও ২০১৮/১৯ মৌসুমের শুরুটা ভালো যাচ্ছিল না জেসুসের। যদিও মৌসুমের শেষ পর্যন্ত ৪৭ ম্যাচে ২১ গোল করে ছয়টি গোল করান ২২ বছর বয়সী এই তরুণ। আর এই সফলতার পেছনে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনার তারকা সার্জিও আগুয়েরোর হাত রয়েছে বলে উল্লেখ করেছেন জেসুস।
সাংবাদিক জেসুস বলেন, সব শেষ মৌসুমের প্রথম দিকে সিটির হয়ে বেশ বাজে সময় পাড় করছিলাম আমি। ফর্ম না থাকার কারণে বেশি ম্যাচও খেলতে পারছিলাম না। এসময় আমার পরিবার ও কাছের কিছু মানুষ আমাকে সাহায্য করেছিল। আমার শারীরিক প্রশিক্ষকও আমাকে সহায়তা করেছেন।
২০১৮/১৯ মৌসুমে ম্যান সিটির প্রথম ১৬ ম্যাচের মধ্যে মাত্র একটি গোল ছিল জেসুসের। যদিও শেষ পর্যন্ত জ্বলে ওঠেন তিনি।

ব্রাজিলিয়ান এই তারকা বলেন, চেষ্টা করছিলাম বেশি গোল করার জন্য। যদিও আমার শটগুলো ছিল দুর্বল। বেশ কয়েকটি ম্যাচ ছিল যেখানে আমি শটও নিতে পারিনি। আর এই কারণে জটিলতা সৃষ্টি হচ্ছিল।
২০০৭ সালের পর প্রথমবারের মতো কোপা আমেরিকা আয়োজন করছে ব্রাজিল। স্কোয়াডের অন্যতম প্রধান সদস্য হিসেবে রয়েছেন জেসুস।
২২ বছর বয়সী এই তরুণ ম্যানচেস্টার সিটির সতীর্থ আগুয়েরো ও নিকোলাস ওতামেন্ডির বিপক্ষে বুধবার কোপার সেমি-ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছেন।
জেসুস জানালেন, নিজের খারাপ সময়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বি দল আর্জেন্টিনার ফরোয়ার্ড আগুয়েরোকে কাছে পেয়েছেন। শিখেছেন তার কাছ থেকেও।
জেসুস বলেন, বর্তমানে আমি অনেক শুট করছি। পরিবর্তন এসেছে নিজের মধ্যে। সিটি আর জাতীয় দল দুটির হয়েই পরিবর্তন আনতে পেরেছি।

অন্যদের তুলনায় আমি আগুয়েরোর দিকে বেশি নজর রাখতাম উল্লেখ করে জেসুস বলেন, কারণ তিনি (আগুয়েরো) অনেক শুট করে থাকেন। এর এই কারণে গোল করতে সহজ হয়। আমি তার থেকে অনেক কিছু শিখেছি। তবে এখন আমরা ভিন্ন দুই দলের হয়ে খেলছি।
ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা খেলা মানে মাঠ ও মাঠের বাইরে অন্যরকম উত্তাপ। পুরো বিশ্বের নজর জেনো আটকে আছে এই দুই দলের পায়ের দিকেই। হাই-ভোল্টেজ এই ম্যাচ নিয়ে ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার বলেন, দুটি দলই জায়ান্ট। ফুটবলে যাদের রয়েছে বর্ণিল ইতিহাস। আমরা যতবার ঘরের মাঠে খেলেছি ততবার বাড়তি সুবিধা পেয়েছি। তাদের বিপক্ষে বাড়তি চাপও রয়েছে।
জাতীয় দলের হয়ে লড়াই করলেও ব্যক্তিগতভাবে তাদের মধ্যে রয়েছে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক। সতীর্থ আগুয়েরোকে নিয়ে জেসুস বলেন, আমি তার বিপক্ষে কোনও বাজি ধরতে চাই না। তিনি তার নিজের দলের জন্য খেলছে আর আমি আমার। যখন আমি ফিরব (ম্যানসিটিতে) তখন তাকে এবং ওতামেন্ডিকেও বিরক্ত করব।

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!