সকাল ৮:২২ | সোমবার | ১৩ই জুলাই, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ২৯শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

কৃষিঋণের আদায় বেড়েছে, কমেছে খেলাপি

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : নানা সুযোগ-সুবিধার পরও ব্যাংক খাতে বাড়ছে খেলাপি ঋণের পরিমাণ। তবে কৃষি খাতে বিতরণকৃত ঋণে খেলাপি কমেছে। চলতি ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে (জুলাই-জানুয়ারি) কৃষি খাতে খেলাপি ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে চার হাজার ৩৮৮ কোটি টাকা, যা আগের অর্থবছরে একই সময় ছিল চার হাজার ৯৯৩ কোটি টাকা। সেই হিসাবে বছরের ব্যবধানে ৬০৫ কোটি টাকার খেলাপি ঋণ কমেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের কৃষি ও পল্লীঋণ বিষয়ক হালনাগাদ প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে।
সংশ্লিষ্টরা জানান, বড় ঋণের তুলনায় কৃষিঋণের আদায় বেশি হয়। কারণ কৃষক ঋণ নিয়ে যথাসময়ে ফেরত দেয়ার চেষ্টা করেন। বাস্তবিক কারণ ছাড়া তারা খেলাপি হন না। তাই বিতরণ করা কৃষিঋণের আদায় বাড়ছে। ফলে এ খাতে কমছে খেলাপির পরিমাণ।

img-add

চলতি অর্থবছরে ২৪ হাজার ১২৪ কোটি টাকার কৃষিঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর মধ্যে জুলাই-জানুয়ারি প্রথম সাত মাসে বিতরণ হয়েছে ১৩ হাজার ১০৪ কোটি টাকা, যা নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রার ৫৪ দশমিক ৩২ শতাংশ। গত অর্থবছরের একই সময়ে চেয়ে এক হাজার তিন কোটি টাকা বেশি। গত অর্থবছরে একই সময় ব্যাংকগুলো বিতরণ করেছিল ১২ হাজার ১০১ কোটি টাকা।
প্রতিবেদনের তথ্য বলছে, অর্থবছরের জানুয়ারি শেষে কৃষি খাতে মোট ঋণ স্থিতি দাঁড়িয়েছে ৪৩ হাজার ৩১৮ কোটি টাকা। এর মধ্যে ঋণখেলাপি হয়েছে চার হাজার ৩৮৮ কোটি টাকা যা মোট ঋণের ১০ দশমিক ১৩ শতাংশ। আলোচ্য সময় পর্যন্ত সরকারি ব্যাংকগুলোর ৩২ হাজার ৫৫ কোটি টাকা ঋণের বিপরীতে খেলাপি রয়েছে চার হাজার ১০০ কোটি টাকা। বেসরকারি ও বিদেশি ব্যাংকগুলোর মোট ১১ হাজার ২৬২ কোটি টাকা কৃষিঋণের বিপরীতে খেলাপি হয়েছে ২৮৭ কোটি টাকা।
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রতিবেদনে দেখা যায়, গত অর্থবছরে কৃষি খাতে বিতরণকৃত ঋণ থেকে সাত মাসে আদায় হয়েছে ২০ হাজার ৫১৯ কোটি টাকা, যা মোট বিতরণকৃত ঋণের তুলনায় বেশি। আগের বছরে একই সময়ে আদায় হয় ১৯ হাজার ৬৮৩ কোটি টাকা। আদায় বেশি হওয়ায় কৃষি খাতে খেলাপি ঋণ কমেছে।
বাংলাদেশ ব্যাংকের তৈরি করা সেপ্টেম্বর’১৯ প্রান্তিকের সর্বশেষ প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, সামগ্রিকভাবে দেশের ব্যাংকগুলোয় সেপ্টেম্বর শেষে বিতরণ করা ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৯ লাখ ৬৯ হাজার ৮৮২ কোটি টাকা। এর মধ্যে অবলোপন বাদে খেলাপি ঋণ প্রায় এক লাখ ১৬ হাজার ২৮৮ কোটি টাকা। যা মোট ঋণের ১১ দশমিক ৯৯ শতাংশ। ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর প্রান্তিকে খেলাপি ঋণ ছিল ৯৯ হাজার ৩৭০ কোটি টাকা। এ হিসাবে এক বছরের ব্যবধানে খেলাপি ঋণ বেড়েছে ১৬ হাজার ৯১৮ কোটি টাকা।
বিগত ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে ব্যাংকগুলো মোট ২৩ হাজার ৬১৬ কোটি ২৫ লাখ টাকা কৃষি ও পল্লীঋণ বিতরণ করেছে। যা মোট লক্ষ্যমাত্রার প্রায় ১০৮ দশমিক ৩৩ শতাংশ। বিগত অর্থবছরে মোট ৩৮ লাখ ৮৩ হাজার ৪২৪ জন কৃষক কৃষি ও পল্লীঋণ পেয়েছেন। যার মধ্যে নিজস্ব নেটওয়ার্ক ও মাইক্রো ফাইন্যান্স ইনস্টিটিউশনের (এমএফআই) মাধ্যমে ১৬ লাখ এক হাজার ৮৫৬ জন নারী প্রায় সাত হাজার ১৯০ কোটি ৫৫ লাখ টাকা ঋণ পেয়েছেন।
ওই অর্থবছরে ২৯ লাখ ৮৯ হাজার ২৩৭ জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক চাষী বিভিন্ন ব্যাংক থেকে প্রায় ১৬ হাজার ৩২২ কোটি ৮৭ লাখ টাকা ঋণ পেয়েছেন। চর ও হাওর প্রভৃতি অনগ্রসর এলাকার ৯ হাজার ৯৫০ জন কৃষক প্রায় ৩১ কোটি ৬১ লাখ টাকা কৃষি ও পল্লী ঋণ নিয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email
এ সংক্রান্ত আরও খবর

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» শেরপুরে পদ্মা ব্যাংকের মামলায় সাজাপ্রাপ্ত ব্যবসায়ী গ্রেফতার

» রোনালদোর জোড়া পেনাল্টিতে জুভেন্টাসের রক্ষা

» করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকলে ভার্চুয়াল কোর্টেই নির্ভর করতে হবে : আইনমন্ত্রী

» বিএনপির ডাবল স্ট্যান্ডার্ড নীতি জনগণের কাছে পরিষ্কার : ওবায়দুল কাদের

» ৭০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যার কবলে চীন

» ঈদুল আজহার নামাজও মসজিদে

» ডা. সাবরিনাকে বরখাস্ত করল স্বাস্থ্য বিভাগ

» কন্যাসহ করোনায় আক্রান্ত ঐশ্বরিয়া

» নালিতাবাড়ীতে পাহাড়ি ঢলে ভোগাই বাঁধে ভাঙন ॥ কয়েক গ্রাম প্লাবিত

» ঝিনাইগাতীতে পাহাড়ি ঢলে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

» প্রকল্পে অনিয়মে জড়িত থাকলে বদলি নয়, বরখাস্ত : এলজিআরডি মন্ত্রী

» ঝিনাইগাতীতে ১০ বছরেও মাথা গুজার ঠাই মেলেনি ভিক্ষুক ছম খাতুনের

» নালিতাবাড়ীতে পুকুরের পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

» প্রস্তুত এন্ড্রু কিশোরের সমাধির স্থান, মঙ্গলবার ফিরছেন মেয়ে

» ৭শ বছরের ইতিহাসে ব্যতিক্রম : হযরত শাহজালালের (র.) মাজারের উরস শেষ হলো নীরবে

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  সকাল ৮:২২ | সোমবার | ১৩ই জুলাই, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ২৯শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

কৃষিঋণের আদায় বেড়েছে, কমেছে খেলাপি

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : নানা সুযোগ-সুবিধার পরও ব্যাংক খাতে বাড়ছে খেলাপি ঋণের পরিমাণ। তবে কৃষি খাতে বিতরণকৃত ঋণে খেলাপি কমেছে। চলতি ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে (জুলাই-জানুয়ারি) কৃষি খাতে খেলাপি ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে চার হাজার ৩৮৮ কোটি টাকা, যা আগের অর্থবছরে একই সময় ছিল চার হাজার ৯৯৩ কোটি টাকা। সেই হিসাবে বছরের ব্যবধানে ৬০৫ কোটি টাকার খেলাপি ঋণ কমেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের কৃষি ও পল্লীঋণ বিষয়ক হালনাগাদ প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে।
সংশ্লিষ্টরা জানান, বড় ঋণের তুলনায় কৃষিঋণের আদায় বেশি হয়। কারণ কৃষক ঋণ নিয়ে যথাসময়ে ফেরত দেয়ার চেষ্টা করেন। বাস্তবিক কারণ ছাড়া তারা খেলাপি হন না। তাই বিতরণ করা কৃষিঋণের আদায় বাড়ছে। ফলে এ খাতে কমছে খেলাপির পরিমাণ।

img-add

চলতি অর্থবছরে ২৪ হাজার ১২৪ কোটি টাকার কৃষিঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর মধ্যে জুলাই-জানুয়ারি প্রথম সাত মাসে বিতরণ হয়েছে ১৩ হাজার ১০৪ কোটি টাকা, যা নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রার ৫৪ দশমিক ৩২ শতাংশ। গত অর্থবছরের একই সময়ে চেয়ে এক হাজার তিন কোটি টাকা বেশি। গত অর্থবছরে একই সময় ব্যাংকগুলো বিতরণ করেছিল ১২ হাজার ১০১ কোটি টাকা।
প্রতিবেদনের তথ্য বলছে, অর্থবছরের জানুয়ারি শেষে কৃষি খাতে মোট ঋণ স্থিতি দাঁড়িয়েছে ৪৩ হাজার ৩১৮ কোটি টাকা। এর মধ্যে ঋণখেলাপি হয়েছে চার হাজার ৩৮৮ কোটি টাকা যা মোট ঋণের ১০ দশমিক ১৩ শতাংশ। আলোচ্য সময় পর্যন্ত সরকারি ব্যাংকগুলোর ৩২ হাজার ৫৫ কোটি টাকা ঋণের বিপরীতে খেলাপি রয়েছে চার হাজার ১০০ কোটি টাকা। বেসরকারি ও বিদেশি ব্যাংকগুলোর মোট ১১ হাজার ২৬২ কোটি টাকা কৃষিঋণের বিপরীতে খেলাপি হয়েছে ২৮৭ কোটি টাকা।
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রতিবেদনে দেখা যায়, গত অর্থবছরে কৃষি খাতে বিতরণকৃত ঋণ থেকে সাত মাসে আদায় হয়েছে ২০ হাজার ৫১৯ কোটি টাকা, যা মোট বিতরণকৃত ঋণের তুলনায় বেশি। আগের বছরে একই সময়ে আদায় হয় ১৯ হাজার ৬৮৩ কোটি টাকা। আদায় বেশি হওয়ায় কৃষি খাতে খেলাপি ঋণ কমেছে।
বাংলাদেশ ব্যাংকের তৈরি করা সেপ্টেম্বর’১৯ প্রান্তিকের সর্বশেষ প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, সামগ্রিকভাবে দেশের ব্যাংকগুলোয় সেপ্টেম্বর শেষে বিতরণ করা ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৯ লাখ ৬৯ হাজার ৮৮২ কোটি টাকা। এর মধ্যে অবলোপন বাদে খেলাপি ঋণ প্রায় এক লাখ ১৬ হাজার ২৮৮ কোটি টাকা। যা মোট ঋণের ১১ দশমিক ৯৯ শতাংশ। ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর প্রান্তিকে খেলাপি ঋণ ছিল ৯৯ হাজার ৩৭০ কোটি টাকা। এ হিসাবে এক বছরের ব্যবধানে খেলাপি ঋণ বেড়েছে ১৬ হাজার ৯১৮ কোটি টাকা।
বিগত ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে ব্যাংকগুলো মোট ২৩ হাজার ৬১৬ কোটি ২৫ লাখ টাকা কৃষি ও পল্লীঋণ বিতরণ করেছে। যা মোট লক্ষ্যমাত্রার প্রায় ১০৮ দশমিক ৩৩ শতাংশ। বিগত অর্থবছরে মোট ৩৮ লাখ ৮৩ হাজার ৪২৪ জন কৃষক কৃষি ও পল্লীঋণ পেয়েছেন। যার মধ্যে নিজস্ব নেটওয়ার্ক ও মাইক্রো ফাইন্যান্স ইনস্টিটিউশনের (এমএফআই) মাধ্যমে ১৬ লাখ এক হাজার ৮৫৬ জন নারী প্রায় সাত হাজার ১৯০ কোটি ৫৫ লাখ টাকা ঋণ পেয়েছেন।
ওই অর্থবছরে ২৯ লাখ ৮৯ হাজার ২৩৭ জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক চাষী বিভিন্ন ব্যাংক থেকে প্রায় ১৬ হাজার ৩২২ কোটি ৮৭ লাখ টাকা ঋণ পেয়েছেন। চর ও হাওর প্রভৃতি অনগ্রসর এলাকার ৯ হাজার ৯৫০ জন কৃষক প্রায় ৩১ কোটি ৬১ লাখ টাকা কৃষি ও পল্লী ঋণ নিয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email
এ সংক্রান্ত আরও খবর

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!