প্রকাশকাল: 13 মার্চ, 2019

উপজেলা নির্বাচন ॥ নালিতাবাড়ীতে আওয়ামী লীগের ত্রি-মুখী লড়াই

নালিতাবাড়ী (শেরপুর) প্রতিনিধি ॥ পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠেয় শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলায় নির্বাচনী প্রচারণা ক্রমেই জমে উঠছে। ২৪ মার্চ অনুষ্ঠেয় ওই নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে, চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ও তাদের সমর্থকরা ততই ব্যস্ত সময় পার করছেন পথসভা, উঠান বৈঠক ও গণসংযোগসহ নানা কর্মকা-ে।
জানা যায়, দ্বিতীয় শ্রেণির একটি পৌরসভা ও ১২টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত সীমান্তবর্তী নালিতাবাড়ী উপজেলায় তৃণমূলের ভোটে প্রথম হওয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, তরুণ শিল্পপতি আলহাজ্ব মোশারফ হোসেনকে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দেয় দলের কেন্দ্রীয় মনোনয়ন বোর্ড। কিন্তু ওই মনোনয়ন মেনে নিতে না পেরে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন তৃণমূলের ভোটে দ্বিতীয় হওয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোকছেদুর রহমান লেবু। কেবল তাই নয়, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, সাবেক এমএনএ প্রয়াত আব্দুল হাকিম সরকারের পুত্র সরকার গোলাম ফারুকও একই পথ বেছে নিয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হন। ফলে দলের মনোনীত প্রার্থীর মূল প্রতিপক্ষই এখন দলের ২ বিদ্রোহী প্রার্থী। তাদের মধ্যে মোশারফ হোসেন নৌকা, মোকছেদুর রহমান লেবু মোটরসাইকেল ও সরকার গোলাম ফারুক আনারস প্রতীক নিয়ে লড়ছেন। এ উপজেলায় শহর বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহবায়ক ফজলুর রহমান দলীয় সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লড়ছেন ঘোড়া প্রতীক নিয়ে। তবে দলের নেতা-কর্মীরা এখনও তার সাথে মাঠে না নামায় তেমন কোন অবস্থান পড়ে ওঠেনি তার। তাই ২ বিদ্রোহী প্রার্থীর সাথেই আওয়ামী লীগ প্রার্থীর মূল লড়াই হতে পারে। অনেকের ধারণা, শেষ মুহূর্তের লড়াই হবে নৌকা-মোটরসাইকেলে।
এছাড়া এ উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থী লড়াই করছেন। এদের মধ্যে ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন আওয়ামী লীগের তৃণমূলের ভোটে নির্বাচিত শহর যুবলীগ নেতা মোঃ শেখ ফরিদ, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা হাজী আমিনুল ইসলাম, শহর আওয়ামী লীগ নেতা প্রিন্সিপাল মুনীরুজ্জামান, বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি আসাদুজ্জামান সোহেল, উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা মিঠু ও আব্দুল কাইয়ুম। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক মালা রাণী সাহা, আশুরা বেগম ও উপজেলা পরিষদের সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেমা সরকার।

আপনার মতামত দিন

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

error: Content is protected !!