সকাল ৬:৪৩ | শনিবার | ২৩শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

আল্লাহর কাছে বান্দার দোয়ার গুরুত্ব অপরিসীম

img-add

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, দোয়া হচ্ছে ইবাদত। অদৃশ্যের যাবতীয় জ্ঞান-ভান্ডরের মালিকের কাছে দোয়ার মর্যাদা অতি ঊর্ধ্বে। বর্ণিত আছে, আখেরী নবীর উম্মতকে ৩টি বিশেষ বৈশিষ্ট্য দান করা হয়েছে, যা আগেকার নবীদের দেওয়া হলেও তাদের উম্মতদের দেওয়া হয়নি। মহান আল্লাহ যখন কোনো নবী পাঠাতেন তখন তাকে বলতেন, ‘তুমি আমাকে ডাকো, আমি তোমার ডাকে সাড়া দেব, আর এ উম্মতকে বলেন, তোমরা আমাকে ডাকো (দোয়া কর) আমি তোমাদের ডাকে সাড়া দেব।’ সুরা গাফের আয়াত ৬০। আর আগের নবীর জন্য তাঁর দীনে কোনো জটিলতা রাখেননি, কিন্তু এ উম্মতের সবারই জন্য তাদের দীনে কোনোরূপ সংকীর্ণতা রাখেননি। আগের নবীকে তাঁর জাতির জন্য সাক্ষী হিসেবে নির্ণয় করেছেন, পক্ষান্তরে এ উম্মতকে সমগ্র মানব জাতির জন্য সাক্ষী হিসেবে প্রেরণ করেছেন। আল্লাহ চান বান্দা সব সময় তাঁর কাছে দোয়া করুক। দোয়ার প্রতি তাই আমাদের বেশি বেশি যত্নবান হতে হবে। ইবরাহিম ইবনে আদহামকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, আমাদের কী হলো আমরা দোয়া করি অথচ তা কবুল হয় না? উত্তরে তিনি বিশেষ কতগুলো কারণ উল্লেখ করেন যেমন তোমরা আল্লাহর পরিচয় লাভ করছে অথচ তাঁর বশ্যতা স্বীকার করনি। রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের পরিচয় লাভ করেছ অথচ তার সুন্নাতের ইত্তেবা করনি। কোরআনের পরিচয় লাভ করেছ অথচ সে অনুযায়ী আমল করনি। আল্লাহর নিয়ামত ভক্ষণ করছ অথচ তাঁর শুকরিয়া আদায় করছ না। জান্নাতের পরিচয় পেয়েছ অথচ তার তলব করনি। আগুনের (জাহান্নাম) পরিচয় লাভ করছে অথচ তা থেকে পলায়ন করনি। শয়তানের পরিচয় লাভ করেছ অথচ তার সঙ্গে লড়াই করনি বরং তার আনুগত্য করেছ। মৃত্যু সম্পর্কে জেনেছ অথচ এর জন্য কোনো প্রস্তুতি গ্রহণ করনি। মৃতকে দাফন করেছ অথচ এ থেকে কোনো শিক্ষা অর্জন করনি এবং নিজের অপরাধের কথা ভুলে পরচর্চায় লিপ্ত হয়েছ। এসব কিছু দোয়া করতে বাধা প্রদান করেনি। আমরা হেদায়াত ও আত্মশুদ্ধির জন্য আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করি। সবচেয়ে নিকৃষ্ট সৃষ্টি ইবলিশের দোয়াও আল্লাহ কবুল করেছেন, ‘সে বলল, হে আমার পালনকর্তাআপনি আমাকে পুনরুত্থান দিবস পর্যন্ত অবকাশ দিন। আল্লাহ বললেন তোমাকে অবকাশ দেওয়া হলো।’ সুরা সোয়াদ আয়াত ৭৯-৮০।

কোনো মানুষই আল্লাহর কাছে শয়তানের মতো অবাঞ্ছিত নয়। মানুষ আল্লাহর কাছে তার অপরাধের জন্য ক্ষমা চাইলে এবং হেদায়াতের জন্য সহায়তা কামনা করলে আল্লাহ অবশ্যই তার প্রতি রহম হবেন। আল্লাহ আমাদের সবাইকে বেশি বেশি দোয়া করার তৌফিক দান করুন।

সূত্র : বাংলাদেশ প্রতিদিন।

Print Friendly, PDF & Email
এ সংক্রান্ত আরও খবর

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» আওয়ামী লীগের উপ-কমিটিতে সদস্য পদ পেলেন শেরপুরের আবদুল মজিদ

» নালিতাবাড়ীতে ফাঁসিতে ঝুলে যুবকের আত্মহত্যা

» শেরপুরে মুজিববর্ষে ২৯১ ভূমিহীন পরিবার পাচ্ছে জমিসহ ঘর

» শ্রীবরদীতে আড়াইশ শিশুর পরিবার পেল শীতবস্ত্র ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা সরঞ্জাম

» নকলায় বিনা উদ্ভাবিত ফসলের চাষাবাদ বিষয়ক কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

» মানব জীবনে ইবাদত ও আনুগত্যের পরিধি অপরিসীম

» কাভানি-পগবা নৈপুণ্যে শীর্ষে ম্যানইউ

» শীতে ত্বক ভালো রাখতে যেসব ভুল এড়ানো দরকার

» অভিষেকেই বাজিমাত করলেন তরুণ পেসার হাসান মাহমুদ

» বিশ্বনেতাদের অভিনন্দন বার্তায় ভাসছেন বাইডেন-কমলা

» মমর নতুন ছবি ‘আগামীকাল’

» ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে সারা দেশে টিকাদান শুরু : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

» বাংলাদেশকে উপহার হিসেবে ২০ লাখ ডোজ করোনা টিকা দিলো ভারত

» চাপে পড়ে আপডেট স্থগিত করল হোয়াটসঅ্যাপ

» বিএনপি করোনা টিকা আগে নিতে চাইলে স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে অনুরোধ করবেন তথ্যমন্ত্রী

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  সকাল ৬:৪৩ | শনিবার | ২৩শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

আল্লাহর কাছে বান্দার দোয়ার গুরুত্ব অপরিসীম

img-add

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, দোয়া হচ্ছে ইবাদত। অদৃশ্যের যাবতীয় জ্ঞান-ভান্ডরের মালিকের কাছে দোয়ার মর্যাদা অতি ঊর্ধ্বে। বর্ণিত আছে, আখেরী নবীর উম্মতকে ৩টি বিশেষ বৈশিষ্ট্য দান করা হয়েছে, যা আগেকার নবীদের দেওয়া হলেও তাদের উম্মতদের দেওয়া হয়নি। মহান আল্লাহ যখন কোনো নবী পাঠাতেন তখন তাকে বলতেন, ‘তুমি আমাকে ডাকো, আমি তোমার ডাকে সাড়া দেব, আর এ উম্মতকে বলেন, তোমরা আমাকে ডাকো (দোয়া কর) আমি তোমাদের ডাকে সাড়া দেব।’ সুরা গাফের আয়াত ৬০। আর আগের নবীর জন্য তাঁর দীনে কোনো জটিলতা রাখেননি, কিন্তু এ উম্মতের সবারই জন্য তাদের দীনে কোনোরূপ সংকীর্ণতা রাখেননি। আগের নবীকে তাঁর জাতির জন্য সাক্ষী হিসেবে নির্ণয় করেছেন, পক্ষান্তরে এ উম্মতকে সমগ্র মানব জাতির জন্য সাক্ষী হিসেবে প্রেরণ করেছেন। আল্লাহ চান বান্দা সব সময় তাঁর কাছে দোয়া করুক। দোয়ার প্রতি তাই আমাদের বেশি বেশি যত্নবান হতে হবে। ইবরাহিম ইবনে আদহামকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, আমাদের কী হলো আমরা দোয়া করি অথচ তা কবুল হয় না? উত্তরে তিনি বিশেষ কতগুলো কারণ উল্লেখ করেন যেমন তোমরা আল্লাহর পরিচয় লাভ করছে অথচ তাঁর বশ্যতা স্বীকার করনি। রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের পরিচয় লাভ করেছ অথচ তার সুন্নাতের ইত্তেবা করনি। কোরআনের পরিচয় লাভ করেছ অথচ সে অনুযায়ী আমল করনি। আল্লাহর নিয়ামত ভক্ষণ করছ অথচ তাঁর শুকরিয়া আদায় করছ না। জান্নাতের পরিচয় পেয়েছ অথচ তার তলব করনি। আগুনের (জাহান্নাম) পরিচয় লাভ করছে অথচ তা থেকে পলায়ন করনি। শয়তানের পরিচয় লাভ করেছ অথচ তার সঙ্গে লড়াই করনি বরং তার আনুগত্য করেছ। মৃত্যু সম্পর্কে জেনেছ অথচ এর জন্য কোনো প্রস্তুতি গ্রহণ করনি। মৃতকে দাফন করেছ অথচ এ থেকে কোনো শিক্ষা অর্জন করনি এবং নিজের অপরাধের কথা ভুলে পরচর্চায় লিপ্ত হয়েছ। এসব কিছু দোয়া করতে বাধা প্রদান করেনি। আমরা হেদায়াত ও আত্মশুদ্ধির জন্য আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করি। সবচেয়ে নিকৃষ্ট সৃষ্টি ইবলিশের দোয়াও আল্লাহ কবুল করেছেন, ‘সে বলল, হে আমার পালনকর্তাআপনি আমাকে পুনরুত্থান দিবস পর্যন্ত অবকাশ দিন। আল্লাহ বললেন তোমাকে অবকাশ দেওয়া হলো।’ সুরা সোয়াদ আয়াত ৭৯-৮০।

কোনো মানুষই আল্লাহর কাছে শয়তানের মতো অবাঞ্ছিত নয়। মানুষ আল্লাহর কাছে তার অপরাধের জন্য ক্ষমা চাইলে এবং হেদায়াতের জন্য সহায়তা কামনা করলে আল্লাহ অবশ্যই তার প্রতি রহম হবেন। আল্লাহ আমাদের সবাইকে বেশি বেশি দোয়া করার তৌফিক দান করুন।

সূত্র : বাংলাদেশ প্রতিদিন।

Print Friendly, PDF & Email
এ সংক্রান্ত আরও খবর

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!