প্রকাশকাল: 25 মে, 2018

নজরুল জয়ন্তীর কবিতা

হে বিদ্রোহী

তালাত মাহমুদ

হে বিদ্রোহী নজরুল দুর্বার দুর্দম চঞ্চল
তোমার উলঙ্গ অভিশাপে জিঞ্জির শৃঙ্খল,
বিষবাণ মন্ত্রে টুটেমুটে দলিত মথিত
আর্তের পীড়িতের শোষিতের পালিত,
শোষকের যতসব দম্ভ দুঃসহ নিপীড়ন
তুমি করেছ একহাঁকে সমূলে উৎপাটন;

সমাজে গঞ্জে ভণ্ডদের গোড়ামী ভণ্ডামী
ওই সুদখোর ঘুষখোর মহাজন হারামী,
সব বেটা মুনাফাখোর জুচ্চোর লম্পটে
বাবাগো মাগো পালাতে ছুটল দাপটে,
তোমার রচিত গদ্য পদ্য গীত নীতিতে
ছেড়েছ দামামী হুঙ্কার আধমরা জাতিতে,

তারপর বিশুদ্ধ আত্মার শুদ্ধি অভিযান
চালাতে একতার জারি করেছ ফরমান;

অভিমানী ছেলে

মোহাম্মদ রবিউল আলম টুকু

আসানসোলে জন্মেছিলে
চুরুলিয়া গ্রামে,
বাবা-মায়ে ডাকতো তোমায়
দুখু মিয়া নামে।
মাসটি ছিলো জৈষ্ঠ তখন
ঋতু গ্রীষ্মকাল,
তারিখ ছিল এগারো আর
তেরশো ছয় সাল।
মঙ্গল বারে জন্ম তোমার
তাই বুঝি ডানপিটে
মুখে তোমার ফুটতো কথা
কড়া নয়তো মিঠে।
তোমার বড় পাঁচ ভাই-বোন
ছিল তোমার ঘরে,
শৈশব তোমার না পেরোতেই
বাবা গেলেন মরে।
অভাব হলো নিত্য সঙ্গী
ক্ষুধায় কাটে দিন,
পেটের দায়ে নাড়ির টানও
হয়ে এলো ক্ষীণ।
মায়ের সনে অভিমানে
ছাড়লে তুমি ঘর,
দুঃখটা তাই সঙ্গী হয়ে
রইল জনম-ভর।
কৈশোর গেলো এলোমেলো
যৌবন ঘুরে-ফিরে,
অকৃত্রিম সুখ খোঁজেছিলে
নারীর ছায়ানীড়ে।
সুখ দেয়নি নারী তোমায়
দেয়নি প্রেমের ছোঁয়া,
ভাবতো তারা তুমি তাদের
ছেলের হাতের মোয়া।
নারী দেয়নি প্রেমের আশ্বাস
সমাজ দেয়নি ঠাঁই,
ধর্মান্ধের দল বলল তোমার
ধর্মে বিশ্বাস নাই।
সাজলে কারো “রিক্তের বেদন”
কারো “ব্যথার দান”,
“পূবের হাওয়া”য় ছড়িয়ে দিলে
“দোলন-চাঁপা”র ঘ্রাণ।
“মৃত্যুক্ষুধা”য় চিবিয়ে খেলে
“ফণিমনসা”র শাক,
“ছায়ানট”এর রাগে বাজাও
তুমি “চক্রবাক”।
“শিউলি মালা” ছুঁড়ে ফেললে
তুমি “বাঁধনহারা”,
“রুদ্রমঙ্গল” রূপ হেরি তোর
বাঁচে “সর্বহারা”।
“বিষের বাঁশি” বাজিয়ে তোলো
“অগ্নিবীণা”র তান,
“প্রলয়শিখা”র আলোয় লেখো
“জিঞ্জির” “ভাঙ্গার গান”।
“কুহেলিকা”য় পথ হারালে
ঐ “দুর্দিনের যাত্রী”,
“আলেয়া”তে দেখাবে পথ
নামবে যখন রাত্রি।
তোর “রাজবন্দীর জবানবন্দী”
তোমার “যুগবাণী”,
“ধুমকেতু”র বেগ ছাড়িয়ে যাবে
“সঞ্চিতা”র হাতছানি।
“মরুভাস্কর” সুর সাধবে
“সিন্ধু-হিন্দোল” রাগে,
“নির্ঝর” ধারা শুনবে বসে
“ঝিঙেফুল” এর বাগে।

প্রিয় কবি নজরুল

মোঃ রাবিউল ইসলাম

বর্ধমানে জন্ম তোমার
গ্রামটি চুরুলিয়া
দুঃখ ব্যথায় বাড়তে গিয়ে
হলে দুখু মিয়া।

শিশুকালেই এতিম করলেন
বাবা কাজী ফকির
ইমাম-খাদেম সেজে তুমি
করলে আয়ের ফিকির।

জীবনটাকে স্বচ্ছভাবে
চালিয়ে নেবার আশায়
প্রথম চাকরি নিলে তুমি
রেল গার্ডেরই বাসায়।

দুটি মাসে পেলে সেথায়
মাত্র পঞ্চাশ টাকা
অনেক ছিলো সেটা কিন্তু
থামলো ভাগ্যের চাকা।

দ্বিতীয়বার চাকরি খোঁজে
রুটির দোকান পেলে
এক টাকা মাসিক বেতন
তবু সেথায় গেলে।

তৃতীয়বার দিলেন চাকরি
কাজী রফিজ উল্যাহ্
ভাগ্যটাকে বদলে দিলেন
এবার মহান আল্লাহ্।

দরিরামপুর বিদ্যালয়ে
হলে এবার ভর্তি
কবি রবির কাব্য পাঠে
ধরলো মনে ফুর্তি ।

দুই বিঘা জমি এবং
পুরাতন ভৃত্য
মধুর সুরে পাঠ করলে
সবাই হলো তৃপ্ত।

যে ঘটনায় হলো শুরু
প্রথম কাব্য গড়া
সেটা ছিলো ফকির বেটার
গাড়ি চাপায় মড়া।

‘ক্ষমা’ নামে লিখে প্রথম
ছাপতে পেলে যুক্তি
নামটি বদল করে ‘ক্ষমা’র
বানিয়ে নিলে মুক্তি।

দশম শ্রেণির শুরু হবে
প্রিটেস্ট পরীক্ষা
ত্যাগ করে তা নিতে গেলে
সৈনিক সাজের দীক্ষা।

বিয়ের শিকল পায়ে বেঁধে
হবে ঘরে বন্দি
বুঝতে পারলে তোমার বন্ধুর
ছিলো একটা ফন্দি।

আসর ছেড়ে তাইতো তখন
করলে পলায়ন
আশালতার সাথে পরে
হলো তোমার মিলন।

অসময়ে দুজন পুত্র
গেলো তোমার মারা
বিয়োগ ব্যথায় কাতর হয়ে
হলে পাগলপারা।

দুঃখে ছিলো জীবন শুরু
শেষটাও দুঃখ দিয়ে
বিড়ম্বনায় কাটলো জীবন
বাকশক্তিটা নিয়ে।

তেতাল্লিশে হারালে বাক্
লেখার বয়স তেত্রিশ
এরই মধ্যে কাব্য সংখ্যা
হলো তোমার ছত্রিশ।

ছোটগল্প আঠারোটি
উপন্যাস হয় তিন
আরো তিনটি নাটক দিয়ে
কাটলো লেখার দিন।

পাঁচটি হলো প্রবন্ধের বই
পঁচিশ শত গান
যেসব লিখে বাংলা ভাষার
বাড়িয়ে দিলে মান।

সাতটি গ্রন্থ ব্রিটিশ সরকার
করলো বাজেয়াপ্ত
সারা বিশ্বে হলো প্রচার
রইলো না তা গুপ্ত।

জীবদ্দশায় পেলে তুমি
নানারকম মান
মসজিদেরই পাশে রইলে
শান্তিতে শয়ান।

এই পৃথিবীর বায়ু যেমন
চলবে সদাই নির্ভুল
সবার মনেই করবে বিরাজ
প্রিয় কবি নজরুল।

আপনার মতামত দিন

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

অবাধে মাছ নিধন অমানবিক নির্যাতনে শিশুর মৃত্যু আত্মহত্যা আহত ইয়াবা উদ্ধার উড়াল সড়ক খুন গাছে বেঁধে নির্যাতন গাছের চারা বিতরণ ঘূর্ণিঝড় 'কোমেন' চাঁদা না পেয়ে স্কুলে হামলা ছিটমহল জাতির জনকের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জাতীয় শোক দিবস জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার সূচি প্রকাশ ঝিনাইগাতী টেস্ট ড্র ড. গোলাম রহমান রতন পাঞ্জাবের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নিহত প্রত্যেক বিভাগে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রধানমন্ত্রী বন্যহাতির তান্ডব বন্যহাতির পায়ে পিষ্ট হয়ে নিহত বাল্যবিয়ের হার ভেঙে গেছে ব্রিজ মতিয়া চৌধুরী মাদারীপুর মির্জা ফখরুলের মেডিকেল রিপোর্ট রিমান্ডে লাশ উদ্ধার শাবলের আঘাতে শিশু খুন শাহ আলম বাবুল শিশু রাহাত হত্যা শেরপুর শেরপুরে অপহরণ শেরপুরে বন্যা শেরপুরের নবাগত জেলা প্রশাসক শ্যামলবাংলা২৪ডটকম’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী সংঘর্ষে নিহত ৫ সোমেশ্বরী নদীর বেড়িবাঁধে ভাঙ্গন স্কুলছাত্র রাহাত হত্যা স্কুলছাত্রী অপহরণ হাতি বন্ধু কর্মশালা হুমকি ২ স্কুলছাত্রী হত্যা
error: Content is protected !!